ঢাকা

উৎসব আমেজে সীমিত পরিসরে যশোরে বঙ্গাব্দ ১৪২৯ বরণ

Link Copied!

মঙ্গল শোভাযাত্রা, সঙ্গীত, নৃত্য, কবিতা আবৃত্তির মধ্য দিয়ে যশোরে বঙ্গাব্দ ১৪২৯ বরণ করে নেওয়া হচ্ছে। করোনা মহামারীর দম বন্ধ সময়ের দুই বছর পর বাঙালির প্রাণের উৎসব বর্ষবরণ বেশ জাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশেই পালন হচ্ছে।  তবে, পবিত্র রমজানের কারণে অনুষ্ঠান সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে।

সকাল ৭টা ১ মিনিটে যশোর পৌরপার্কে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর আয়োজন করা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এখানে কবিগান, পালাগান, পঞ্চকবির গান, আধুনিক গান, লোকসঙ্গীত, লোকনৃত্য, বাউল গান পরিবেশন করে সংগঠনের দুইশ্কর্মী। এছাড়া পুনশ্চ যশোর মুসলিম একাডেমি স্কুল মাঠে এবং তির্যক যশোর ডা. আব্দুর রাজ্জাক কলেজে অনুরূপভাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

যশোরের ৩২ টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের মধ্যে তিনটি সংগঠন পৃথকভাবে তাদের অনুষ্ঠান করলেও অপর সংগঠনগুলো সম্মিলিত
সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে বর্ষবরণ পর্ষদের ব্যানারে যশোর টাউন হল মাঠে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এরপর সকাল সোয়া ৯টার দিকে যশোর টাউন হল মাঠ থেকে সম্মিলিতভাবে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়

শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় যশোরের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, পৌরমেয়রসহ বিভিন্ন রাজনীতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক
ব্যক্তি ছাড়াও সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন। শোভাযাত্রায় বড় বড় পুতুলসহ বিভিন্ন মুখোস ও গরুরগাড়িসহ গ্রামবাংলার চিরায়ত বিভিন্ন সামগ্রী বহন করা হয়।

দীর্ঘ বিরতীর পর বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ। বর্ষবরণের এ অনুষ্ঠান দেশে সকল ধর্ম বর্ণের মানুষের মধ্যে সম্প্রতির বন্ধন সৃষ্টি করবে এমনটা আশা তাদের।

এদিকে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, যশোরে সুন্দরভাবে নববর্ষ উদযাপন হচ্ছে। সার্বিক আয়োজনে ব্যাপক নিরাপত্তা রয়েছে বলে জানান তিনি।

http://www.anandalokfoundation.com/