ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিউলে ‘মহান বিজয় দিবস-২০২১’ উদ্‌যাপন

নিউজ ডেস্ক
December 16, 2021 9:55 pm
Link Copied!

সিউল (দক্ষিণ কোরিয়া): সিউলস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে যথাযোগ্য উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে ‘মহান বিজয় দিবস-২০২১’ উদ্‌যাপন করা হয়। সামাজিক দূরত্ব স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ অনুষ্ঠানে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও তাদের পরিবার এবং বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে চ্যান্সারি ভবনটিকে আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়।

রাষ্ট্রদূত মোঃ দেলওয়ার হোসেন কর্তৃক দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় সংগীত সহযোগে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। অতঃপর, দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ও বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যবৃন্দের উপস্থিতিতে রাষ্ট্রদূত দূতাবাসে জাতির পিতার ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানের পরবর্তী পর্ব বিকেলে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশনার মাধ্যমে শুরু হয়। অতঃপর মহান মুক্তিযুদ্ধে শহিদদের বিদেহী আত্মার শান্তি এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এরপর দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি,  প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন। এরপর দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে একটি মুক্ত আলোচনা পর্বে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এবং প্রবাসী বাংলাদেশিগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। আলোচকগণ স্বাধীনতা অর্জনে জাতির পিতার দূরদর্শী নেতৃত্ব, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত আত্মত্যাগ এবং আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতি সম্পর্কে আলোকপাত করেন।

রাষ্ট্রদূত তাঁর বক্তব্যের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া তিনি মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা ও নির্যাতিতা বীরাঙ্গনাদের অবদানের কথা সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অভিযাত্রা এবং বাংলাদেশের অর্জনসমূহ উপস্থাপন করে তিনি  জাতির পিতার সুখী, সমৃদ্ধ, শোষণ ও বৈষম্যহীন ‘সোনার বাংলা’ বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। আলোচনা পর্বের পরে রাষ্ট্রদূত উপস্থিত অতিথিবৃন্দের সাথে কেক কাটেন।

অতঃপর উপস্থিত সকলে ঢাকা থেকে সরাসরি সম্প্রচারিত প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পরিচালিত শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

পরবর্তীতে বাংলাদেশ দূতাবাসের পরিবার ও কোরিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশের নাগরিকদের অংশগ্রহণে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরিশেষে, বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী খাবার পরিবেশনের মধ্য দিয়ে আনন্দঘন এই অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

http://www.anandalokfoundation.com/