13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সুন্দরবনে বঙ্গোপসাগরে বৈরী আবহাওয়ায় উপকূলে ফিরতে শুরু করেছে ফিশিং বোটবহর 

Link Copied!

সুন্দরবনে বঙ্গোপসাগরে বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে উত্তাল সাগরে মাছ ধরতে না পেরে উপকূলে ফিরতে শুরু করেছে ফিশিংবোটবহর। কতিপয় ফিশিংবোট সুন্দরবনের দুবলার বিভিন্ন খালে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে। সাগরে ক্রমাগতভাবে ঝড়ের কারণে খালি ফিশিংবোট ফিরে আসায় জেলে মহাজনরা হতাশ হয়ে পড়েছেন।

বাংলাদেশ ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও শরণখোলার মৎস্য ব্যবসায়ী এম সাইফুল ইসলাম খোকন বলেন, জেলে মৎস্যজীবিরা সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে বার বার দুর্যোগের কবলে পড়ে মাছ ধরা বন্ধ রেখে ফিরে আসতে বাধ্য হচ্ছে ফলে জেলে ও বোট মালিকদের লোকসানে পড়ে পথে বসার উপক্রম হয়েছে।

পূর্ব সুন্দরবনের দুবলার ভেদাখালী ও মেহেরআলী খালে আশ্রয় নেওয়া বাগেরহাটের বগা এলাকার ফিশিংবোট এর মাঝি ইলিয়াস হোসেন ও মিজানুর রহমান শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মোবাইল ফোনে বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে সাগরের আবহাওয়া হঠাৎ খারাপ হয়ে পড়েছে। প্রবল ঢেউ ও ঝড়ো বাতাসে সাগরে জাল ফেলতে না পেরে বেশ কিছু ফিশিংবোট ভেদাখালী, মেহেরআলী খালসহ আশে পাশের খালে নিরাপদ আশ্রয় নিয়ে আছে।

বরগুনা জেলা ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, সাগরে বৈরী আবহাওয়ার কারণে ফিশিংবোটবহর নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য উপকূলের দিকে ফিরতে শুরু করেছে।

শরণখোলা ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি আবুল হোসেন বলেন, গত একমাসের মধ্যে চারবার জেলেরা সাগরে গিয়ে খারাপ আবহাওয়ার কারণে মাছ ধরতে না পেরে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছে। এ বছর জেলেরা অপূরণীয় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

জেলেপল্লী দুবলা ফরেষ্ট টহল ফাঁড়ির নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একজন ফরেষ্টার মোবাইল ফোনে বলেন, শুক্রবার ভোরে দুবলা অঞ্চলের উপর দিয়ে আকষ্মিকভাবে প্রবল বেগে ঝড় বয়ে যায়। অনেক ফিশিংবোট দুবলার বিভিন্ন খালে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে বলে তিনি জানান।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) শেখ মাহবুব হাসান বলেন, দুর্যোগের কারণে ফিশিংবোটবহরকে সুন্দরবনের খালে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকায় সহযোগিতা করার জন্য বনরক্ষীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

http://www.anandalokfoundation.com/