বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
সিদ্ধেশ্বরী পূজামন্ডপে জন্মাষ্টমীর পূজায় তথ্যমন্ত্রী  সকল ধর্মের রক্তস্রোতে বাংলাদেশের অভ্যুদয় -বৌদ্ধদের সঙ্গে তথ্যমন্ত্রী  নবীগঞ্জে স্বাস্থবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা অর্থনীতির গতিধারা অক্ষুন্ন রাখার জন্য নিবিড়ভাবে কাজ করতে হবে -অর্থমন্ত্রী নোয়াখালীতে পিতৃহীন মেয়ের বিয়ে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন পুলিশ সুপার নবীগঞ্জের ইনাতগঞ্জে ভুয়া সিআইডি পরিচয়ে যুবক আটক সালথায় জন্মাষ্টমীতে আ‌লোচনা ও প্রার্থনা সভা আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে হাই-টেকপার্কের ত্রিপক্ষীয় চুক্তি জন্মাষ্টামী উপলক্ষ্যে বেনাপোল বন্দরে আমদানি রফতানি বন্ধ বেনাপোলে খালে বাঁধ অপসারণ পাটা ও জাল আগুনে বিনষ্ট

শহরের নাগরিকদের প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের আধুনিক সেবা দিতে সরকার কাজ করছে

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) বিভিন্ন ধরনের সেবা এখন থেকে পাওয়া যাবে হেল্প লাইন নম্বর ৩৩৩-এ। এর মাধ্যমে ডিএনসিসির আওতাধীন বিভিন্ন ধরনের সেবা ও সেবার তথ্য মোবাইল ফোনেই পাবেন নাগরিকরা।

আজ রাজধানীর গুলশানে ডিএনসিসি নগর ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই সেবার উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে এই সেবার উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে পলক বলেন, ‘তথ্য সেবা সবসময়’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৮ সালের এপ্রিলে প্রধামন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ৩৩৩ এর উদ্বোধন করেন। এই সেবার সঙ্গে আজ থেকে যুক্ত হলো ডিএনসিসি। মেয়র বারবার এজন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন। তার স্পৃহাতেই সিটি কর্পোরেশনের সেবাগুলো ডিজিটাল হলো। এরই মধ্যে আমরা আমাদের‘ এক-সেবা’ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে সরকারি প্রায় ১৬৪টি সেবা ডিজিটালি দিচ্ছি। কেউ যদি নিরক্ষর ও হয় তিনিও সেবা পাবেন ৩৩৩-এ। তিনি ফোন দিয়ে সেবা চাইলে সিটি করপোরেশন থেকে লোক তারকাছে গিয়ে সেবা দেবেন, ফরম পূরণ করে দেবেন। এই শহরের দেড় কোটি মানুষ সহ সকল শহরের নাগরিকদের প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের আধুনিক সেবা দিতে সরকার কাজ করছে।

অন্যান্য হেল্পলাইন গুলোর সঙ্গে ৩৩৩-কে যুক্ত করা হবে বলে ও জানান পলক। এলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (১৪নভেম্বর) একটি চুক্তিস্বাক্ষর করা হবে বলে জানান তিনি। এর মাধ্যমে অন্যান্য সংস্থা গুলোর সেবা ও একজায়গা থেকেই নাগরিকদের দেওয়া সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী।

সভাপতির বক্তৃতায় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আজ আপনাদের জন্য চ্যালেঞ্জের দিন। আগে কোনো সময় নাগরিকেরা আমাদের ফোন করতো না। এখন থেকে ফোন করতে পারবে,  প্রশ্ন করতে পারবে; সেবা ও হয়রানি নিয়ে অভিযোগ জানাতে পারবে। জনগণের কাছে জবাব দিহিতার চ্যালেঞ্জ এটা। নাগরিকদের সেবা আমাদের দিতে হবে।

আতিক আরও বলেন, আমাদের পরিকল্পনা আছে ৫৪টি ওয়ার্ড থেকেই জন্মসনদ দেওয়ার। এরপর পরিকল্পনা আছে জন্মসনদ, ট্রেডলাইসেন্সের মতো দলিল ঘরে বসেই ডেলিভারি নিতে পারবেননা গরিকেরা। এখন খাবার যেমন ঘরেবসেই অর্ডার করে পাওয়া যায়, তেমনি সিটিকর্পোরেশনের বিভিন্ন ধরনের সেবা ঘরে বসেই নাগরিকেরা পাবেন এমন উদ্দেশ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হাই, একসেস টু ইনফরমেশনের প্রকল্প পরিচালক আবদুল মান্নান।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit