বাংলাদেশে প্রথম যৌগিক হস্‌পিটাল এর ফ্রি যোগ সেমিনার অনুষ্ঠিত

    Palash Dutta
    October 10, 2020 10:39 pm
    Link Copied!

    বাংলাদেশে রাজধানী ঢাকাতে এই প্রথম চালু হয়েছে যৌগিক হস্‌পিটাল। আনন্দম্‌ ইনস্টিটিউট অব যোগ এন্ড যৌগিক হস্‌পিটালের এই সেবামূলক কার্যক্রমের আজ ছিল প্রথম সেমিনার। যৌগিক চিকিৎসা পদ্ধতি একদিকে রোগ নিরাময় করে আবার ভাবী রোগের আক্রমণ থেকে প্রতিরোধও করে। বলেছেন পরিচালক যোগী পিকেবি প্রকাশ(প্রমিথিয়াস চৌধুরী)।

    আজ ১০ অক্টোবর শনিবার সকাল ৮টায় রাজধানী ঢাকার গুলিস্তানের পাশে কাপ্তান বাজারে আনন্দম্‌ ইনস্টিটিউট অব যোগ এন্ড যৌগিক হস্‌পিটাল আয়োজিত ঔষধ নির্ভরে পরাধীন যোগানুশীলনে হোন স্বাধীন শীর্ষক যৌগিক চিকিৎসা বিষয়ক যোগ সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

    দ্যা নিউজের বার্তা সম্পাদক রাই কিশোরীর সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশস্থ ভারত সেবাশ্রম ঢাকার অধ্যক্ষ স্বামী সঙ্গীতানন্দ মহারাজ এবং সোনালী ব্যাংকের সাবেক উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক পরিতোষ কুমার তরুয়া

    যোগী পিকেবি প্রকাশ বলেন, যৌগিক আসন, মুদ্রা ও প্রাণায়াম অভ্যাসে স্নায়ু, পেশী, ধমনী, গ্রন্থি, হৃদপিণ্ড,ফুস্‌ফুস্‌, অগ্নাশয়, যকৃত, পাকস্থলী প্রভৃতি দেহপরিচালক যন্ত্রগুলি এমন সবল ও প্রাণবাণ হয় কোন রোগবিষ বা কোন রোগ জীবাণু দেহে প্রবেশ করেও বৃদ্ধি পাওয়ার সুযোগ পায় না। একারনেই এই চিকিৎসা পদ্ধতি সমগ্র চিকিৎসা প্রণালীর শীর্ষ স্থানে অধিষ্ঠিত।

    আরও বক্তব্য রাখেন ভারত থেকে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত যোগ প্রশিক্ষক দেবব্রত নাথ জুয়েল, পাতঞ্জল যোগ সংঘ এর সংগঠক ও যোগ প্রশিক্ষক দেবব্রত সরকার(দেবু),  জাগো আর্ট সেন্টার এর যোগ প্রশিক্ষক এম আর আজাদ, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক রবীন্দ্রনাথ বসু, মহানগর পূজা কমিটির অন্যতম সদস্য ডাঃ মনোরঞ্জন মজুমদার ও অন্যান্য অনেকে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।

    আরও উপস্থিত ছিলেন, ওয়ারী থানা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ দেলোয়ার হোসেন রিপন, ওয়ারী থানা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী শিপন, কাপ্তান বাজার ইউনিট আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আহসানুল হক(কানন), স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী, অ্যাডভোকেট সুনীল বিশ্বাস, দ্যা নিউজের ফটোসাংবাদিক শওকত হোসেন জনী, দ্যা নিউজের বিশেষ প্রতিবেদক মোঃ আমির সোহেল প্রমূখ।

    উল্লেখ্য, রেজিস্ট্রিকৃত সংস্থার অধীনে আনন্দম ইনস্টিটিউট অব যোগ এন্ড যৌগিক হস্‌পিটাল প্রতিষ্ঠিত। এই হাসপাতালে ৬ টি কেবিন ও ৮টি সাধারণ বেড রয়েছে। প্রতি শুক্রবার ও শনিবার সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত বহির্বিভাগে রোগীদেখা ও রোগপ্রশমক যৌগিকক্রিয়াদি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০:০০মিনিট থেকে ৫:০০টা পর্যন্ত চিকিৎসা সেবা চলছে। এছাড়াও রয়েছে সুস্থ্য থাকতে সকল মানুষের জন্য নিয়মিত যোগাভ্যাসের ব্যবস্থা।

    বাংলাদেশে এই প্রথম প্রাতিষ্ঠানিক যোগ শিক্ষার কোর্স শুরু হবে। জানুয়ারী মাস থেকে যোগ সার্টিফিকেট কোর্স (শর্ট), যোগ সার্টিফিকেট কোর্স ও যোগ ডিপ্লোমা কোর্স এ ক্লাস শুরু হবে।