ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গভীর রাতে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন নারী উদ্দ্যোক্তা রাহিমা আক্তার সুইটি

Link Copied!

‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না । ঠাণ্ডা বাতাসের দাপট আর মাঝে মাঝে অসময়ের বৃষ্টি মিলে শীত জেঁকে ধরেছে সবাইকে। হিম হিম ঠাণ্ডা আর কুয়াশায় নাকাল রাজধানীর জনজীবন। শীতের এই তীব্রতা বেশি কাবু করে নিম্ম আয়ের অসহায় হতদরিদ্র দিনমজুর মানুষকে। শীতার্ত অসহায় ও দুস্থ মানুষের উষ্ণতা দিতে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে পাশে দাঁড়াল নারীদের নিয়ে গঠিত সংগঠন “আমরা নারী আমরা উদ্দ্যোক্তা সংগঠনটি । ৭০ হাজারের বেশী নারীদের নিয়ে আত্মনির্ভরশীল সংগঠন আমরা নারী আমরা উদ্যোক্তা(wwwe)

তারাই ধারাবাহিকতায় রাতের আঁধারে রাজধানীর রামপুরা বনশ্রী বিভিন্ন এলাকা, বাসস্ট্যান্ডে, ফুটপাতে থাকা ছিন্নমূল মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন, আমরা নারী আমরা উদ্যোক্তা(wwwe) প্রতিষ্ঠা সভাপতি রাহিমা আক্তার সুইটি সহ তার সংগঠনের অনেক নারী উদ্দ্যেক্তা।

রামপুরা বনশ্রী এলাকায় এসব কম্বল সুবিধাবঞ্চিত অসহায় ব্যক্তিদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন তিনি। সরেজমিনে দেখা যায়, কনকনে শীতে চরম বিপাকে পড়ছেন রামপুরা বনশ্রীর অসহায়, গরিব-দুঃখী শীতার্ত মানুষ। গরিব-দুঃখী শীতার্ত মানুষের কষ্ট লাঘবে রামপুরার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ঘুরে শীতার্ত মানুষের মাঝে গভীর রাতেও কম্বল বিতরন করেন রাহিমা আক্তার সুইটি।

কনকনে শীতের মধ্যে হঠাৎ যখন রাহিমা আক্তার এর হাতে শীতবস্ত্র দেখে ছিন্নমূল দুঃস্থ, অসহায় ও প্রতিবন্ধীরা আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন।বনশ্রী বেশ কিছু এতিমখানায় ও কম্বল বিতরন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে রাহিমা আক্তার সুইটি সাংবাদিকদের জানান প্রচন্ড শীতে রামপুরা বনশ্রী এলাকার অনেক অসহায় দিনমজুর খুব কষ্ট পাচ্ছে। এই শীতে কোনো দুঃস্থ পরিবার যেন কষ্ট না পায়, সেজন্য তাদের পাশে শীতবস্ত্র নিয়ে দাঁড়িয়েছি। এভাবেই শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অব্যাহত থাকবে আমাদের। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি নারী উদ্দ্যোক্তা প্রমূখ।

http://www.anandalokfoundation.com/