বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০৭:২৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
৬০টি অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করলো ফাজিলপুর যুবসমাজ শশুর বাড়িতে এসে হোম কোয়ারেন্টে না থাকায় সংঘর্ষ জামাইসহ আহত ১৩ কমলনগরে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেন ওসি নুরুল আফছার ভোলায় সংবাদকর্মীকে পেটানো সেই চেয়ারম্যান পুত্র সন্ত্রাসী নাবিল আটক কুড়িগ্রামে করোনা প্রতিরোধে প্রশাসন ও সাংবাদিকের সাথে মতবিনিময় এবং ত্রাণ বিতরণ পঞ্চগড়ে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক পত্নীতলায় থানা পুলিশের খাদ্য বিতরণ দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের যথেষ্ট প্রস্তুতি রয়েছে -ওসি মোসলেম উদ্দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে অসহায়, দরিদ্র, নিম্নআয়ের মানুষের পাশে দাড়ালেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম ঝিনাইদহে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ১৫ জন আহত

নমঃশূদ্র বর্ণের কোন শাস্ত্রীয় ভিত্তি নেই

নমঃশূদ্রের শাস্ত্রীয় ভিত্তি

পরিতোষ আচার্যঃ সনাতনধর্মে বর্ণ চারটি – ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয়, বৈশ্য, শূদ্র। চারটিই কর্মগুণ অনুযায়ী, জন্ম গুনে নয়৷ বেদ, উপনিষদ, গীতায় তাই বলা হয়েছে৷ যেমন কোন মানুষ ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে পরীক্ষায় না পাস করা পর্যন্ত তাকে ইঞ্জিনিয়ার বলা যায় না৷ ঠিক তেমনি প্রতিটি বর্ণই এরকম কর্মগুণের আধার।
সমাজে কেউ চাষী, কেউ মুচি, কেউ ডাক্তার, কেউ জর্জ, কেউ সেনাবাহিনীর অফিসার, কেউ শিক্ষক ইত্যাদি হয় তাদের কর্ম গুণে৷ একেক জনের উপার্জন ও অর্থনৈতিক মূল্যায়ণ একেক রকম হয়, তাই বলে একজন চাষীকে একজন ডাক্তার ছোট বলার অধিকার নেই, তেমনি অন্যান্য কর্মগুণের ক্ষেত্রেও ৷
সবগুলোই একে অপরের পরিপূরক। চাষী উৎপাদন না করলে বাকি সবার খাদ্য পাবে না, মেথর পরিষ্কার পরিছন্নতার কাজ না করলে নোংরা ও ময়লার ভেতর সবাইকে বাস করতে হবে। তাই কারো মূল্যায়ণ কারো চেয়ে কম নয়। কর্মগুণে সবাই স্বতন্ত্র। আধুনিক কালে একদল আরেকটি বর্ণের উৎপন্ন করেছে নমঃশূদ্র বর্ণ যার শাস্ত্রীয় কোন ভিত্তি নেই।
পুরাণ ও বল্লাল সেনের উপর ভিত্তি করে কি সনাতনধর্ম চলে? এসব বুঝেও যারা ইচ্ছা করেই নিজেদের নমঃশূদ্র পরিচয় দেয় তাদের নিজেদেরও যথেষ্ট দোষ আছে এ বিষয়ে৷
তাদের হৃদয়ে সংস্কারের কোন চিন্তা নেই আছে কেবল পৃথক ধর্ম সৃষ্টি বা মতবাদ তৈরীর ধ্যাঁন ধারণা৷ বেদ, উপনিষদ, গীতায়  যথার্থ প্রমাণ থাকলেও কিছু স্বার্থন্বেষী কুচক্রী মহল এগুলো মানতে চায় না। আর বোকা সনাতনীরা  সংস্কারপন্থী না হয়ে নিজেরাই নিজেদের সেই জায়গায় আটকে রাখছে।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930 
       
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit