13yercelebration
ঢাকা

জাতির জনকের কাছে বাঙালির ঋণ অপরিশোধ্য

admin
August 15, 2015 8:38 am
Link Copied!

আজ ১৫ আগস্ট, জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এ দিনে বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে একদল বিপথগামী সেনা।

শোকাবহ সেই দিনের কথা স্মরণ করে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহযোদ্ধারা বলছেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রে ৭১’র পরাজিত শক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে।

বিশ্লেষকদের মতে, বাংলাদেশের স্বাধীন সত্ত্বাকে যারা মেনে নিতে পারেননি তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি হিসেবে শেখ মুজিবুর রহমানের কাছে বাঙালির ঋণ অপরিশোধ্য।

লাখো জনতার সামনে মুক্তির গান শোনালেন বাংলার অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এরপর সংগ্রামের পথ ধরে এলো প্রিয় স্বাধীনতা। জাতির স্থপতি এবার হাত দিলেন দেশ পুনর্গঠনের কাজে।

কিন্তু প্রশাসক হিসেবে দেশকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানোর আগেই একদল বিপথগামী সেনার হাতে জীবন দিতে হলো বাঙালির স্বপ্ন দিশারীর। পাঁচটি ট্রাকে করে আসা শতাধিক সেনার হাতে সেদিন শুধু বঙ্গবন্ধুই নয়, প্রাণ হারান শিশু রাসেলসহ পরিবারের অন্যসব সদস্যও। দেশের বাইরে থাকায় বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

শোকাবহ সেই দিনের কথা স্মরণ করলেন বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহযোদ্ধা আমির হোসেন আমু।

তিনি বলেন, সকালে নামাজ পড়ার জন্য উঠবো উঠবো বলে চিন্তা করছি। এমন সময় খালা এসে দরজা ধাক্কা দিলো। দরজা খুলে দেখি সবাই হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। পরে আমি ঘরের মধ্যে ঢুকলাম দেখি ডালিম ঘোষণা দিচ্ছে। তখন আমি বললাম এটা আধা ঘণ্টার মধ্যে শেষ হয়ে যাবে। তখন দেখি অনবরত শব্দ শুনতে পাই তখন মনের মধ্যে একটা অনুভূতি হয়। একজন আপনজনের খারাপ খবর শুনরে যেমন লাগে ঠিক তেমন।’

তার মতে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধ ধ্বংস করে পাকিস্তানের শাসন পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়।

তিনি বলেন, ‘১৫ আগস্ট মূলত সংগঠিত হয়েছিল যারা ৭১ এ পরাজিত শক্তি এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক  ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়ে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হলো। প্রত্যেকটি জায়গা মুক্তিযুদ্ধের উপরেই আঘাত এসেছে। ৭৫’র হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত ছিল জিয়াউর রহমানের আমলে তাদের বিভিন্ন সুযোগ দেয়া হয়েছে।’

অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের মতে, ১৫ই আগস্টের পর থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নানাভাবে বিতর্কিত করার চেষ্টা হলেও, বাঙালির স্বাধীনতার স্বাদ পাইয়ে দেয়ায় বঙ্গবন্ধুর ঋণ অপরিশোধ্য।

তিনি মনে করেন, ‘যত দিন গেছে, মানুষ উপলদ্ধি করেছে, বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছিল তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়নি। তাঁর নেতৃত্বেই যুদ্ধ করে আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র অর্জন করেছি। এই অর্জনের জন্য বঙ্গবন্ধুর কাছে আমরা যে ঋণ, তা অপরিশোধ্য।’

দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে শোকাবহ এইদিনটিকে সার্বজনীনভাবে পালন করার উপর জোর দিলেন এই বিশ্লেষক।

http://www.anandalokfoundation.com/