ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কে যাবেন মঙ্গল গ্রহে, কত ভাড়া লাগবে জেনে নিন

নিউজ ডেস্ক
April 22, 2022 4:02 pm
Link Copied!

মঙ্গল গ্রহে জীবন হবে “বিপজ্জনক, সংকীর্ণ এবং কঠিন।” সেখানে যেতে নতুনদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। প্রাথমিকভাবে মঙ্গল গ্রহে যেতে একমুখী টিকিটের দাম প্রায় ১ লক্ষ ডলার হবে। এই ভাড়াকে মহাকাশযাত্রীদের জন্য অত্যন্ত সাশ্রয়ী বলে অভিহিত করেছেন ইলন মাস্ক অ্যান্ডারসন।

তিনি আরও বলেন,  দুর্বল হৃদয়ের মানুষদের জন্য মঙ্গলগ্রহে যাওয়া ঠিক হবে না। পাশাপাশি, মঙ্গলে মানুষের বসতি স্থাপনের এই মিশন প্রথমদিকে একেবারেই সহজসাধ্য হবেনা বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে এই অভিযানের শুরুর জন্য ১০০০ টি স্টারশিপের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০৩০ থেকে ২০৪০ পর্যন্ত প্রতি দুই বছরে নির্দিষ্ট সংখ্যক বার এগুলি লঞ্চ করা হবে। এই স্টারশিপগুলির প্রতিটিতে ১০০ জনেরও বেশি মানুষ থাকতে পারবেন।

ইলন মাস্ক বলেন, একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ উপনিবেশ স্থাপনের জন্য অনেক প্রচেষ্টা প্রয়োজন। এই মিশনটি চালানোর জন্য, লোকেরা স্টারশিপ মহাকাশযানের জন্য ১ লক্ষ ডলারের একটি টিকিট কিনে নিজেদেরই খরচ সামলাবেন। “একটি স্বনির্ভর শহর তৈরি করতে পর্যাপ্ত লোক এবং পর্যাপ্ত পণ্যসম্ভার মঙ্গল গ্রহে আনতে হবে। মঙ্গল গ্রহে যেতে যদি ১ লক্ষ ডলার খরচ হয়, আমি মনে করি প্রায় সবাই এটা করতে পারবেন। যদিও ভাড়া তার চেয়ে কমও হতে পারে।”

প্রকৃতপক্ষে, বিশ্বের সবচেয়ে ধনী বিজনেস টাইকুন ২০৫০ সালের মধ্যে মঙ্গলে মানব বসতি স্থাপনের দাবি করেছেন। তাঁর কোম্পানি স্পেসএক্স এমন একটি রকেট তৈরির কাজ করছে যা মানুষকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মঙ্গলে নিয়ে যেতে পারে। একটি বিবৃতিতে মাস্ক জানিয়েছিলেন, তিনি প্রায়শই সৌরজগতের বিভিন্ন গ্রহে মানুষের বসতিকে সমর্থন করে আসছেন।

তবে তিনি তাঁর মঙ্গল অভিযান সম্পর্কে খুব বেশি তথ্য সামনে আনেননি। যদিও, মনে করা হচ্ছে যে, এই দশকের শেষ নাগাদ, স্পেসএক্স মঙ্গল গ্রহে মানুষের বসতি স্থাপনের মিশন শুরু করতে পারে।

স্পেসএক্সের স্টারশিপ এখনও পর্যন্ত নির্মিত সবচেয়ে জটিল এবং উন্নত রকেট। ইলন মাস্ক নিজেই এই মহাকাশযানটিকে “নেক্সট লেভেল” মেশিন বলে বর্ণনা করেছেন। স্পেসএক্স সাম্প্রতিক বছরগুলিতে মঙ্গলে মানব বসতির লক্ষ্য পূরণের জন্য তার কাজ আরও জোরদার করেছে। এই মাসের শুরুর দিকে, মাস্ক প্রকাশ করেছেন যে, স্পেসএক্স ফ্লোরিডায় একটি লঞ্চপ্যাড নির্মাণ শুরু করেছে যা স্টারশিপ রকেট পরিচালনার সুবিধা প্রদান করবে।

http://www.anandalokfoundation.com/