13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আদালতে যাওয়ার পথে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

Link Copied!

সিলেট আদালতে মামলার হাজিরা দিতে যাওয়ার পথে জুনায়েদুল ইসলাম (২৭) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন নিহত জুনায়েদুলের ভাই জাহিদুল ইসলাম (৩৩)।

৫ মার্চ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়নের রুকনপুর গ্রামের জামে মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ থানা পুলিশে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

নিহত ও আহত দুজন সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের কলমপুর গ্রামের কনাই মিয়ার ছেলে।
আহতের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে জুনায়েদুল ও জাহেদুল মামলার হাজিরা দিতে সিলেটের আদালতে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ফেঞ্চুগঞ্জের রুকনপুর গ্রামের জামে মসজিদের পাশে অটোরিকশা পৌঁছানো মাত্র ১০/১৫ জন দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এতে ঘটনাস্থলেই জুনায়েদুলের মৃত্যু হয়। আহতদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আহত জাহেদুলকে দ্রুত উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আরিফ হোসাইন বলেন, পূর্ব বিরোধ থেকে জুনায়েদুল ও জাহেদুলের ওপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে জুনায়েদুল ইসলামের মৃত্যু হয়। আহতাবস্থায় জাহেদুলকে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন স্থানীয়রা।
বালাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বদিউজ্জামান বলেন, মারামারি নিয়ে স্থানীয় প্রতিপক্ষের সঙ্গে তাদের বিরোধ ছিল। এ বিরোধ থেকে ২০২২ সালে হতাহতদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। ওই মামলায় হাজিরা দিতে গেলে প্রতিপক্ষরা তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে জুনায়েদুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই মারা যান।
এদিকে স্থানীয়দের ধারণ করা এক ভিডিওচিত্রে গুরুতর আহত জাহেদুল জানান, বালাগঞ্জের আহমদ আলীর ছেলেরা চারটি মোটরসাইকেলে এসে তাদের ওপর দা নিয়ে এলোপাতাড়ি হামলা চালায়। হামলাকারীদের মধ্যে মজনু, বাছিত, এনাম, মেহাম্মদ আলী ও আলী হোসেনের নাম উল্লেখ করেছেন তিনি।

http://www.anandalokfoundation.com/