রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০২:১৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
২০২১ সালের মধ্যে সবার জন্য ইন্টারনেট -আইসিটি প্রতিমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে নির্বাচিত হয়েই খুন বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর ভোলায় জমির বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, মামলা দায়ের, আটক ১ শৈলকুপা পৌরসভা নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন, বেসরকারী ভাবে নৌকার প্রার্থী বিজয়ী শিবলিঙ্গ-জয় শ্রীরাম বলা নিয়ে কটূক্তিতে এক হাত ধুয়ে দিলো সায়ানিকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ প্রদান রোববার পায়রা বন্দরের রাবনাবাদ চ্যানেলের ড্রেজিং কাজ শুরু -নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী রাণীনগরে ইউপি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামীলীগ নেতা মজিদের মোটর শোভাযাত্রা পঞ্চগড়ে মুজিব শতবর্ষে ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত  কালীগঞ্জে ব্যাতিক্রমী আয়োজন স্বেচ্ছাস্বেবী সংগঠনের মিলনমেলা

Allegation of embezzling ADP money against a UP chairman in Taraganj

তারাগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান

Dipok Roy, Taraganj (Rangpur) Correspondent : A UP chairman in Rangpur’s Taraganj upazila has been found to have embezzled around Rs 1.5 lakh from the ADP (Asian Development Program) project.  According to the source, the chairman made the voucher in his own name instead of the voucher in the name of the project president.  Based on the information obtained under the Right to Information Act, this information has come up against Mohiuddin Azam Kiran, the chairman of Sayar Union Parishad of the upazila.

According to the Right to Information Act, ADP has allocated Tk 150,000 for the purchase of musical instruments at Burirhat Cultural Center in Sayar Union in Taraganj Upazila in the 2018-19 financial year.  The Upazila Engineering Department allocated the money for the purchase of harmoniums, drums, tabla, jipani, khol, mandira, dotara, setar, flute, kamak, keyboard and drums at the cultural center.  But the investigation revealed that the project president Parul Begum did not know anything about the money allocated in her name.  Talking to Parul Begum on her mobile phone, she told this reporter, “Brother, I don’t know whether I am the president of the project or not. No one has even told me about it.” And I have never seen if there is any cultural center in Burirhat.  Tactically, the UP chairman has embezzled money from me by withdrawing the bill with my signature.  He further said, “I did not do any work on that project and I did not raise any money.”

Accused Saar UP chairman Mohiuddin Azam Kiran declined to comment when asked about the matter on his mobile phone.

Upazila Assistant Engineer Mamunur Rahman said, “I have prepared the estimate of the project.”  But I did not know that there was no such cultural center.  Haider Zaman, upazila engineer, said, “I don’t have the documents for the project.”  So I can’t say anything.

When Upazila Chairman Anisur Rahman was called on his mobile phone, he could not be reached for comment as he did not receive the call.

SHARE THIS:

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দ্যা নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
      1
16171819202122
23242526272829
3031     
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit