শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ভোলায় অকস্মিক ঝড়ে আড়াই শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত করোনা প্রতিরোধক সরঞ্জাম প্রদান, খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ও সনাতনী সৎকার টিম গঠন প্রকৃতি ও পুরুষের মিলনেই সকল সৃষ্টির মূল নিহিত কালীগঞ্জের প্রয়াত বিএনপি নেতা এস এম ওহিদুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত দেশের ইতিহাসে বৃহত্তম ত্রাণ প্রধানমন্ত্রীর – তথ্যমন্ত্রী ধনী বৃদ্ধির হারে শীর্ষে বাংলাদেশ করোনায় আক্রান্ত হয়ে আজ এক পুলিশের মৃত্যু নিয়ে ১৫ জনের সম্মুখ যোদ্ধার শাহাদাত বরণ কালীগঞ্জ মালিয়াট ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট ঘোষণা বোয়ালমারীতে পৃথক সংঘর্ষে আহত অর্ধশত। বাড়িঘর ভাংচুর-লুটপাট পঞ্চগড়ে আম গাছ থেকে পরে কিশোরের মর্মান্তিক মৃত্যু

বাগেরহাটে আ.লীগের দুই নেতা হত্যায় দলীয় চেয়ারম্যান ও ৫ মেম্বারসহ ৫৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির.সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার:বাগেরহাট:বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই নেতা হত্যার ঘটনায় দলীয় চেয়ারম্যানসহ ৫৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেছে পুলিশ।

দীর্ঘ ৮ মাস তদন্ত শেষে আজ বুধবার বাগেরহাট আমলী আদালতে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা থানার ওসি(তদন্ত) ঠাকুর দাস মন্ডল চার্জশীট দাখিল করেন। মামলার বাদি মো. ফরিদ আহম্মেদ এ সময় তার সাথে ছিলেন। চার্জশীট নং-২১০।

চার্জশীটে মোট ৫৮জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। যার প্রধান অভিযুক্ত হচ্ছেন দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদের আ. লীগ দলীয় চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম ফকির(৫৫)। অপর অভিযুক্তদের মধ্যে পরিষদের ৫ জন মেম্বর, ১জন দফাদার, ১জন চৌকিদারসহ একই দলের নেতাকর্মীরা রয়েছেন। এদের বিরুদ্ধে ৩০২ধারাসহ ১৪টি ধারায় অপরাধের প্রমান পেয়েছে পুলিশ।

গত ১লা অক্টোবর বেলা ৩টার দিকে দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনছার আলী দিহিদার(৫২) ও শুকুর শেখকে(৪০) বাড়ি থেকে ধরে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে পিটিয়ে, কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয়।

চার্জশীটে বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ নেতা আনছার আলী ও শুকুর শেখের হত্যা মিশনে সরাসরি অংশ নেয় ১৯জন। যার নেতৃত্ব দেন চেয়ারম্যান শহিদুল ফকির। এ জোড়া হত্যাকান্ডে মোট ৫৮জনের সংশ্লিষ্টতা পেয়েছে পুলিশ। মামলার বাদি নিহত শুকুর শেখের ভাই ফারুক আহম্মেদ দাখিলকৃত চার্জশীটে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা ঠকুর দাশ মন্ডল বলেন, জোড়া হত্যার ঘটনায় থানা ও কোর্টে পৃথক ৩টি মামলায় মোট ৭৪ জনকে আসামি করা হয়েছিল। তদন্তে কিছু বাদ পড়েছে, কয়েকজনের নাম যুক্ত হয়েছে। চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার তদন্তে স্থানীয় ৫৪ জনসহ মোট ৮২ জনের স্বাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে।

ঘটনার দিন (১ অক্টোর ২০১৮) থেকে তদন্ত চলাকালে পুলিশ এ মামলার আলামত হিসেবে একটি সিঙ্গেল শর্ট এলজি, ৬ চেম্বারের একটি রিভলবার, ১২ বোরের একটি শর্টগান, শরীর থেকে বের করা গুলির দুটি ধাতব পিলেট, ১২ বোরের ২ রাউন্ড ফায়ার্ড কার্তুজ, ১ রাউন্ড ৯ এমএম ক্যালিবারে ফায়ার্ড কার্তুজ, রক্তমাখা দাও, লাঠি, ছোরা, কুড়ালসহ অনেক আলামত জব্দ করেছে।

মামলার প্রধান আসামি শহিদুল ফকিরসহ ২৬ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। উচ্চ আদালত থেকে সাময়িক জামিনে আছেন ১ জন ও পলাতক ৩১ জন।

মামলাটি তদন্তকালে জেলা পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় সার্বক্ষনিক মনিটরিং করেছেন এবং থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম তদন্তে সহযোগীতা করেছেন বলেও তদন্তকারি কর্মকর্তা জানান।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
      1
3031     
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit
error: Content is protected !!