ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেশে বীর-পীর অনেক, দেশপ্রেমিকের বড় অভাব

admin
September 4, 2015 12:03 am
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টারঃ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘দেশে বীর, পীর, দাতা, জ্ঞানী মানুষের অভাব নেই কিন্তু দেশপ্রেমিকের বড় অভাব। সবাই এমপি-মন্ত্রী না হলেও দেশপ্রেমিক হতে হয়। দেশপ্রেমিক না থাকলে দেশ রসাতলে যায়। আপনারা সেই দেশপ্রেমিক হবেন। এটাই আমার প্রত্যাশা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের আয়োজনে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রামের ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ারিং বাংলাদেশের (আইইবি) স্বীকৃতি অর্জন উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। শিক্ষার্থীদের তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বড় করে স্বপ্ন দেখবেন। উঁচুতে লক্ষ্য স্থির করবেন। পৌঁছাতে হবে এমন কোনো কথা নেই। সেনাপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখবেন, সৈনিক হলেও চলবে। রাজপথের স্বপ্ন দেখবেন সরু গলি হলেও চলবে কিন্তু ছোট স্বপ্ন দেখা যাবে না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জীবনের লক্ষ্য স্থির করুন। প্রবন্ধের প্রথম প্যারাটি সময় নিয়ে ভালোভাবে চিন্তা করে লিখবেন, যাতে আপনি পুরো প্রবন্ধটি শেষ করতে পারেন। হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করেছে শিক্ষিত শয়তানরা। আশা করি আপনারা শিক্ষিত শয়তান হবেন না। বরং শয়তানের হাত থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করার চেষ্টা করবেন। আমরা যৌবনে যুদ্ধবিদ্যা ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান চর্চা করেছি’ মন্তব্য করে ইনু বলেন, ‘মানুষের শান্তির জন্য আজও যুদ্ধ করে যাচ্ছি। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এ যুদ্ধ চালিয়ে যাবো, যাতে আমার সন্তানদের আর যুদ্ধ করতে না হয়। তারা শান্তিতে সঙ্গীত ও বিজ্ঞান চর্চা করতে পারে।

পিতা-মাতা ও শিক্ষকদের দেনা পরিশোধ করা যায় না উল্লেখ করে মন্ত্রী মতের অমিল হলেও তাদের সাথে তর্ক না করার আহ্বান জানান। প্রেমিক-প্রেমিকা, স্বামী-স্ত্রীদেরও তর্ক না করার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, ‘তাতে পরিবেশ দূষিত হয়ে যায়। হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘শেখ হাসিনা দেশে উন্নয়নের বীজ পুঁতেছেন। সময় দেন। সকাল–বিকেল বীজ তুলে দেখার চেষ্টা করবেন না। আমরা পদ্মাসেতু ও মেট্রো রেল দেবো।’ তথ্যমন্ত্রী-মাদক ও নকলমুক্ত থাকার জন্যও ছাত্র-ছাত্রীদের পরামর্শ দেন।

স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. এমএ হান্নান ফিরোজের সভাপতিত্বে এসময় আরো বক্তব্য রাখেন বোর্ড ও ট্রাস্টিজ সদস্য ফাতিনাজ ফিরোজ, মাহবুব আলম জাকির, এম জাকির হোসাইন, এনামুল হক শামীম, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চেয়ারম্যান ড. এম ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ।

http://www.anandalokfoundation.com/