শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
তাবলীগ জামাতের ৯৬০ বিদেশী নাগরিককে ব্ল্যাকলিস্ট, ভিসা বাতিল ও ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞা জারি আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে এবার অনলাইন ভিডিও ব্লগিং প্রতিযোগিতা হেলথ ব্রিজ প্রেসক্রিপশন অ্যাপে চালু করেছে ই-ক্লিনিক সেবা দক্ষিণ আইচায় শহীদ জিয়ার ৩৯তম শাহাদাত বার্ষিকীতে দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে নো মাক্স, নো ট্রাভিলিং এর উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক ভোলায় গাঁজাসহ নারী মাদক পাচারকারী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে মরিচ শুকাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা কুড়িগ্রামে মাদকবিরোধী পুলিশি অভিযান আটক – ৪  সালথায় মাস্ক ব্যবহার না করায় ১৪ জনকে জরিমানা গত ২৪ ঘন্টায় বগুড়ায় ৪২ জন নিয়ে এপর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৫১৭ সুস্থ ৪৮

দেবোত্তর সম্পত্তি ইউপি চেয়ারম্যানের দখল নিয়ে উৎকণ্ঠায় সংখ্যালঘুরা

দেবোত্তর সম্পত্তি দখল

দুলাল পালঃ শ্মশান কালী মন্দিরের জমি দখল করে চারটি দোকান নির্মাণের অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন মোল্লার বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার এ নিয়ে স্থানীয় সংখ্যালঘু ও চেয়ারম্যানের লোকজনের মধ্যে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পুলিশ গিয়ে দোকান নির্মান বন্ধ করে দেয়। এ ঘটনায় চরম উৎকণ্ঠায় স্থানীয় সংখ্যালঘুরা।

ঢাকা জেলার ধামরাই থানার নান্নার ইউনিয়ন পরিষদসংলগ্ন শ্মশান কালী মন্দিরের দেবোত্তর সম্পত্তি দখল করে নিয়ে যেতে চেয়েছিল ১৬ নং নান্নার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলতাফ মোল্লা।

সরেজমিনে জানা গেছে, ধামরাইয়ে ১৬ নং নান্নার ইউনিয়ন পরিষদসংলগ্ন একটি শ্মশান কালী মন্দিরের নামে ২৮০ শতাংশ দেবোত্তর সম্পত্তি রয়েছে।  এ শ্মশানের দেবোত্তর সম্পত্তিতেই ১৯৮৬ সালে নির্মাণ করা হয়েছিল নান্নার ইউনিয়ন পরিষদের একতলা ভবন। ঐ মন্দিরের ৩ শতাংশ জমিতে ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে মোজাম্মেল হোসেন, মাসুম হোসেন, চৈতন্য ও ইয়াছিন দখল করে ইটের দেয়াল দিয়ে দোকান নির্মাণ শুরু করেন। স্থানীয় লোকজন দেখে মন্দির কমিটিকে জানায়। মন্দির কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ ও তার বাবা হরিপদ ঘোষ বাধাঁ দিলে দুদিন দোকান নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখে।

গত মঙ্গলবার ফের চেয়ারম্যানের নির্দেশে নির্মাণ কাজ শুরু হলে মন্দির কমিটির লোকজন ও চেয়ারম্যানের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। দোকান নির্মাণের কাজ বন্ধ না হওয়ায় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ বাদী হয়ে ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে ধামরাই থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক রিপন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দোকান ঘর নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেন।

মন্দির কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, এ সম্পত্তি মন্দিরের নামে দেবোত্তর সম্পত্তি। এই সম্পত্তিতে ঘর নির্মাণ কিংবা ভাড়া শুধুমাত্র মন্দির কমিটি দিতে পারে। এই সম্পত্তি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করে জামান নেওয়ার অধিকার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের নেই।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন মোল্লা এই সম্পত্তি শ্মশান কালী মন্দিরের নামে দেবোত্তর সম্পত্তি স্বীকার করে বলেন,  পূর্বের চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ও আবুল বাশার বাদশা এই চারটি দোকানঘর নির্মাণ করে গেছেন। ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন বলে আমি এখন শুধু চার ব্যবসায়ীর নিকট থেকে ৪০ হাজার করে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নিয়ে দোকান মেরামত করে দিয়েছি।

স্থানীয় সংখ্যালঘুরা জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মন্দির কমিটির লোকজন ও আমাদেরকে বিভিন্ন ধরনের হূমকি দেয়, মন্দির জায়গায় দোকান করিলে বিভিন্ন ধরনের মামলার হুমকি দেন, আমরা সংখ্যালঘু বলে বাংলাদেশে কোনো মূল্যায়ন নাই।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, শ্মশান কালী মন্দিরের নামে দেবোত্তর সম্পত্তি দখল করার ব্যপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি এবং ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে অতিদ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন..

One response to “দেবোত্তর সম্পত্তি ইউপি চেয়ারম্যানের দখল নিয়ে উৎকণ্ঠায় সংখ্যালঘুরা”

  1. EACH AND EVERY LEADERS OF AWAMILEAGE IS DOING THE PARTY FOR CAPTURED OTHERS PROPERTIES AND ASSETS. THEY NEVER DO THE LEADERSHIP FOR THE BETTERMENT OF THE COUNTRY MEN.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930   
       
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit
error: Content is protected !!