13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সীমানা২০০৮ সালের পক্ষে আ’লীগ, বিএনপি চায় ২০০১

admin
November 7, 2017 1:54 am
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ আইনের খসড়া তৈরি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে মতামতের জন্য (ভেটিং) আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। তবে এরই মধ্যে আওয়ামী লীগ-বিএনপিসহ দুই শতাধিক তকবির ( আবেদন) পড়েছে ইসিতে। নির্বাচন কমিশন সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, অনেক এমপি সীমান পুনর্নির্ধারণের জন্য তকবির নিয়ে স্বশরীরে ইসিতে হাজির হচ্ছেন। কেউ কেউ টাকা নিয়ে আসছেন বলেও আভিযোগ উঠেছে। বিএনপি সমর্থিতরা চাচ্ছে, ২০০১ সালে সংসদীয় আসনে যে সীমানা ছিল সেটি ফিরিয়ে আনতে। কারণ ২০০৮ সালে অধিকাংশ আসন পরিবর্তন করেছে ইসি। আওয়ামী লীগ চায় বর্তমান আসন (২০০৮)। বিএনপির অভিযোগ ২০০৮ সালে তাদের আসন গুলোকে ভেঙ্গে দলকে বিপদে ফেলানো হয়েছে। যে এলাকায় বিএনপির দুটি ছিটে ভাল সমর্থক ছিল, সেখানে ১টি করা হয়েছে। ফলে দলীয় একটি আসন কমে গেছে। আবার একই ছিটে বিএনপি সমর্থিত এলাকা অন্য আসনের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়ে রাজনৈতিক মারপ্যাচে ফেলা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, তিন ডজন জেলার বর্তমান সংসদ সদস্য ও সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রায় দুই শতাধিক আবেদন পরেছে ইসিতে। এসব আবেদন ইসি আমলে নিবে না। কারণ বিদ্যমান ও প্রস্তাবিত দুই আইনেই সীমানা পুনর্নির্ধারণের খসড়া চূড়ান্ত ভাবে প্রকাশের পর নির্বাচন কমিশন থেকেই আপত্তি ও মতামত জানানোর আহ্বান জানানো হয়। ওই সময় যেসব আবেদন পাওয়া যায় সেগুলো আমলে নেয়া হয় এবং গণশুনানি করে সীমানা পুনর্নির্ধারণের চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করা হয়।সুতরাং খসড়া তালিকা প্রকাশের আগে যেসব আবেদন জমা পড়ছে সেগুলো বিবেচনায় নেয়ার তেমন কোনো সুযোগ নেই।

সীমান পুনর্নির্ধারণ নিয়ে সব থেকে বেশি আভিযোগ পরেছে বরিশাল বিভাগ থেকে। শুধু বরিশালের হিজলা-মুলাদি আসন থেকে প্রায় দেড় ডজন অভিযোগ জমা পরেছে। এছাড়া পিরোজপুর জেলার একটি আসন থেকে অভিযোগ এসেছে ডজন খানেক।

নির্বাচন কমিনের আসা আবেদনগুলো থেকে দেখা যায়, ২০০৮ সালের আগের অবস্থায় বরিশাল-৪ আসন ফিরিয়ে দিতে সিইসির কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন বরিশালের হিজলা উপজেলা বড়জালিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও হিজলা উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হাওয়ানুর চৌধুরী।

তিনি বর্তমান বরিশাল-৪ (হিজলা-মেহেন্দিগঞ্জ) আসন পরিবর্তন করে আগের মতো হিজলা ও মুলাদী উপজেলা নিয়ে বরিশাল-৩ আসন গঠনের দাবি জানিয়েছেন। একই ধরনের আবেদন করেছে হিজলা উপজেলার সাবেক কয়েকজন জনপ্রতিনিধি।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম এমপি সম্প্রতি ইসির সচিবকে একটি চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠিতে কুমিল্লা-৯ আসন আগের মতো নির্ধারণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন। চিঠিতে তিনি বলেছেন, আমার নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লা-৯ লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত।লাকসাম উপজেলার বাকই (উত্তর) ইউনিয়নটি নবগঠিত লালমাই উপজেলার অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ওই ইউনিয়নকে কুমিল্লা-১০ আসনে যুক্ত করে লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলার বাকি ইউনিয়নগুলো নিয়ে কুমিল্লা-৯ আসন নির্ধারণের অনুরোধ করছি।

http://www.anandalokfoundation.com/