13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভোলায় জেলেদের চাল চুরির অভিযোগে ইউপি মেম্বার গ্রেপ্তার

Rai Kishori
April 11, 2020 8:44 pm
Link Copied!

ভোলা প্রতিনিধি॥ ভোলার লালমোহন উপজেলায় জেলে পূনর্বাসেন চাল চুরির অভিযোগে ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো.ওমর ফারুখ (৩৮) কে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার ভোররাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড নিজ বাড়ি থেকে থেকে তাকে আটক করা হয়।

মো. ওমর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও একই এলাকার মুত ফোরকার মিয়ার ছেলে।
এর আগে শুক্রবার রাতে ১৫ বস্তা চাল জব্দ করে ট্যাগ অফিসার ও পুলিশ। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবীর।

তিনি জানান, লালমোহন-তজুমদ্দিনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওনের নির্দেশে এ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

জানা যায়, গত বুধবার থেকে বদরপুর ইউনিয়নে জেলে পূনর্বাসনের চাল দেয়া হয়। দুই মাসের চাল খাদ্য গুদাম থেকে ছাড় দেয়া হলেও চেয়ারম্যান মো. ফরিদুল হক তালুকদার ১ মাসের চাল নিয়ে বিতরণ করেছেন। ১৭১০ জেলের মধ্যে চাল বিতরণ করার কথা থাকলেও প্রকৃত অধিকাংশ জেলেকেই চাল দেয়া হয়নি।

স্থানীয়দের অভিযোগ, চেয়ারম্যান ও তার ভাতিজা ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার ওমরসহ প্রতিবারই চাল বিতরণের সময় অনিয়ম করে আসছেন। চাল ওজনে কম দেয়াসহ নামে বেনামে চাল নিয়ে বিভিন্নভাবে পরিষদের গুদাম থেকে সরাচ্ছেন তারা। চেয়ারম্যান ও তার ভাতিজা ওমরের নেতৃত্বে তাদের নিকটাত্মীয় ও পছন্দের লোকদের জেলে সাজিয়ে নামে বেনামে জেলেদের চাল তোলা হয়। পরে ওই সব চাল পরিষদের পাশে বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে লুকিয়ে রাখে।

এমন অভিযোগ ভিত্তিতে সংসদ সদস্য প্রশাসনকে চাল উদ্ধার করে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। পরে ট্যাগ অফিসার রফিকুল ইসলাম, পিআইও অপূর্ব দাস ও লালমোহন থানার পুলিশ পরিষদ এলাকায় অভিযান চালান।

শুক্রবার রাত ৯টা পর্যন্ত কয়েকটি বাড়িতে অভিযান চালান তারা। ওমর মেম্বারের এলাকা ৬নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলামের ঘর থেকে ৪ বস্তা, সুমন চালকের ঘর থেকে ৯ বস্তা ও পরিষদের পাশে সমিলের কাঠেরগুঁড়ার মধ্যে লুকিয়ে রাখা আরও ২ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মো. ফরিদুল হক তালুকদার বলেন, এসব চাল কার্ডধারী জেলেদের। জেলেরা চাল পেয়ে বিক্রি করেছে।

ট্যাগ অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আমি জেলেদের নিয়ম মতো চাল বিতরণের তদারকি করেছি। তারপরও এসব চাল কীভাবে বাইরে বের হলো তা আমার জানা নাই। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।

লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো.মীর খায়রুল কবির এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। লালমোহন থানায় মামলা নং ১১। তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

http://www.anandalokfoundation.com/