ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পদ্মা সেতু দেখতে যাওয়ার পথে ৪ বন্ধুসহ প্রাণ গেল ৫ জনের

Link Copied!

মুন্সীগঞ্জে পদ্মা সেতু দেখতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আরও একজন আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে চাঁদপুর সদরের তিনজন ও মুন্সীগঞ্জের বিক্রমপুরের দুইজন রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে মুন্সীগঞ্জের নিমতলী হাঁসারা হাইওয়েতে কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- চাঁদপুর সদর উপজেলার ইচলি এলাকার কলমতর গাজী বাড়ির এনায়েত উল্লাহ গাজীর একমাত্র ছেলে সামাদ গাজী (২৪), শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের পল্লীবিদুৎ এলাকার আবুল কালামের ছেলে আহাদ (২০) একই এলাকার জিহাদ (২০) ও মুন্সীগঞ্জের বিক্রমপুর এলাকার দুইজন। বিক্রমপুরের নিহত দুইজন পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে শুক্রবার (৩ জুন) দুপুরে চাঁদপুরের নিহত তিনজনের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসার পর পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

চাঁদপুর সদর উপজেলার ৯নং বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম জানান, নিহতদের মধ্যে চারজন তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান তাজ ফেব্রিক্সের কাছাকাছি সদরঘাট বিক্রমপুর গার্ডেন সিটি মার্কেটের নিচতলার দুটি দোকানের কর্মচারী। রাত ৩টায় দুর্ঘটনার খবর পেয়েছেন তিনি। তারা রাত ১২টার দিকে নয়াবাজার থেকে সিএনজি ভাড়া করে মাওয়া ঘাটে ঘুরতে গিয়েছিল।

নিহত সামাদের ভাই মো. রুবেল বলেন, পদ্মা সেতু দেখার উদ্দেশ্যে রাতে চার বন্ধু মিলে সিএনজিতে রওনা হয়। মুন্সীগঞ্জের নিমতলী হাঁসারা হাইওয়েতে কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে সিএনজির ধাক্কা লাগে। এতে সিএনজির চালক ও চার বন্ধু মারা যান। এর মধ্যে তিন বন্ধু চাঁদপুরের আর একজন বিক্রমপুরের। নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পুলিশের কাছে আবেদন করে নিয়ে আসা হয়েছে।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুর রশীদ  ঢাকা পোস্টকে বলেন, এ ঘটনায় চাঁদপুরের তিনজন মারা গেছেন বলে শুনেছি। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানা ব্যবস্থা নেবে।

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর হাঁসারা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আফজাল হোসেনের ঢাকা পোস্টকে বলেন, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে হাইওয়েতে সড়ক দুর্ঘটনায় মোট পাঁচজন মারা গেছেন। দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলেই চারজন মারা যান। অপর একজন মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। আরেকজন সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

http://www.anandalokfoundation.com/