13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঝিনাইদহ নলডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান কবিরের উপর হামলা

Rai Kishori
March 14, 2019 9:08 pm
Link Copied!

ষ্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহ॥ ঝিনাইদহ সদরে নলডাঙ্গা বাজারের দক্ষিণ পাশ্বে অতর্কিত হামলার শিকার হলেন নলডাঙ্গ ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন।

বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার সময় রঙমহল ব্রিজের পাশ্বে ঘটনাটি ঘটে। দীর্ঘ দিন ধরে চেয়ারম্যান ও মেম্বরের মধ্যে রাজনৈতিক মতদন্দের কারনে এমনটি হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চেয়ারম্যান কবির হোসেন তার কিছু সহযোগী লোকজন নিয়ে চা-এর দোকানে বসে গল্প করছিল। এ সময় বিপুলের চায়ের দোকানের পিছনে হঠাৎ করে প্রতিপক্ষের চার জন লোক রেজাউলের হোটেল থেকে কাঠের বাটাম নিয়ে ভিটশ্বর গ্রামের মৃত নজের খাঁ ছেলে ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বর আসাদুল ইসলাম (৪৫) নেতৃত্বে একই গ্রামের জুলহক মন্ডলের ছেলে জুয়েল (২৮), মোস্তফা মন্ডলের ছেলে আলামিন (২৭), মনিরুল মন্ডলের ছেলে আশানুর (২৫) ও কালীগঞ্জ উপজেলার তৈলকূপী দীঘিরপাড় গ্রামের অকিল উদ্দিনের ছেলে দাউদ হোসেন (৩৪) সহ কয়েকজন চেয়ারম্যান ও তার লোকজনকে উপর হামলা করে।

চেয়ারম্যানকে আঘাত করতে গেলে চেয়ারম্যানের সহযোগী মেহেদী ও লিটন, হয়রত সহ আরো কয়েকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় চেয়ারম্যান কবির, ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য আসাদুল, জুয়েল, মেহেদী জখম হয়।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান জানান, অল্পের জন্য প্রানে বেঁচে গেছি, আমার উপর দেশীয় অস্ত্র ও বাটাম নিয়ে মেম্বরের ৮/৯ লোকজন হামলা করে। খবর পেয়ে নলডাঙ্গা ক্যাম্পের পুলিশ এসে মেম্বর ও তার সহযোগীকে উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

আসাদুল মেম্বর জানান,আমি চেয়ারম্যানের সহযোগী লিটনকে খুজতে যাওয়াই আমাদের উপর রাসেল, হযরত, লিটন হামলা করে। ঐখানে চেয়ারম্যান আছে কিনা আমি জানতাম না। আমার এবং জুয়েলের নাক মুখসহ পিঠে আঘাত করেছে।
নলডাঙ্গা ক্যাম্পের আইসি আনোয়ার হোসেন জানান, মেম্বর আসাদুল ও জুয়েলকে নিয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে তাদেরকে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

http://www.anandalokfoundation.com/