13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীদের জগা খিচুড়িতে বিএনপির প্রার্থী সুবিধাজনক অবস্থানে

admin
March 12, 2016 7:44 pm
Link Copied!

এস.এম মফিদুল ইসলাম, পাটকেলঘাটা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি :তালার ৯ নং খলিষখালী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামীলীগের মনোনীত, বিদ্রোহী প্রাথীর্, ওয়ার্কাস পার্টির জগা খিচুড়িতে সুবিধাজনক অবস্থানে বিএনপির প্রার্থী।
গতকাল সরেজমিন গিয়ে খলিষখালী ইউনিয়নে সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এবারের নির্বাচনে দলীয় প্রতীক হওয়ায় ভোটারদের আগ্রহ না থাকলেও প্রার্থীদের উৎসাহ দিতে একটুও কমতি নেই সর্ব সাধারণের। যে কারণে ভোটাররা কোন প্রার্থীকে ভোট দিবে তা সঠিকভাবে প্রকাশ না করায় অনেক প্রার্থী রয়েছে চরম বিপাকে। ইউনিয়নটিতে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শেখ নুর আহম্মদ ধানের শীষ, আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী সাংবাদিক মোজাফফর রহমান নৌকা, একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী অশোক লাহিড়ী চশমা, ওয়ার্কাস পার্টির অধ্যাপক সাবীর হোসেন এবং বর্তমান চেয়ারম্যান হাজী সুলতান আহমদ স্বতন্ত্র হয়ে আনারস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

আ’লীগের বিদ্রোহী এবং ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক ওয়ার্কাস পাটির মনোনীত একাধিক প্রার্থী হওয়ায় বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী। অপরদিকে বর্তমান চেয়ারম্যান হাজী সুলতান আহমেদ প্রার্থী হয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গেলেও তার কর্মকান্ডে ভোটাররা অনেকটাই মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায় আশা নিরাশার দোলাচালে ইতিমধ্যে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন এমন মন্তব্য সাধারণ ভোটারদের।

ইউনিয়নটিতে ভোটারের সংখ্যা ২০ হাজার ৪ জন। এর মধ্যে ভোট ব্যাংক হিসেবে খ্যাত হিন্দু ভোটারের সংখ্যা প্রায় ৮ হাজার। সবমিলিয়ে নৌকা ও হাতুড়ী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর চশমা একদিকে স্রোত প্রবাহিত করে নিজেদের শক্ত অবস্থান তৈরী করার চেষ্টা করলেও মুল স্রোতে ধানের শীষের অবস্থান অনেকটাই এগিয়ে।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এনায়েত পুর, চোমরখালী, কাশিয়াআঙ্গা, বাগমারা, উত্তর খলিষখালীর, টিকারামপুর গ্রামের সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা ভোটারদেরকে ভয় ভীতি প্রদর্শন করছে। ফলে ভয়ে সাধারণ ভোটাররা ক্ষমতাসীন প্রার্থীদের পক্ষে অবস্থান নিলেও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে ধানের প্রার্থীর নিরব বিপ্লব ঘটবে।

এ বিষয়ে ধানের শীষের প্রার্থী শেখ নুর আহম্মদ, ছাত্রদলের সভাপতি সাংবাদিক মেহেদী হাসান, বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান, আওয়াল মোড়ল, কায়কোবাদ, সিরাজুল ইসলাম, বাবুল গোলদার, শেখ মশিয়ুর রহমান , ইদ্রিস বিশ্বাস, শেখ ভুট্ট সহ একাধিক ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে কাশিয়াডাঙ্গা বাজারে গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অসুস্থ, অনেক বিএনপি নেতা ভয়ে প্রতিদ্বন্দীদের প্রচার প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছে।

অপরদিকে ক্ষমতাসীন দলের উভয় প্রার্থীরা ভোটারদের যেভাবে ভয় দেখাচ্ছে, ঠিক সেভাবেই বিভিন্ন গণসংযোগে ভোট ছিনিয়ে নেওয়ার হুমকিও অব্যাহত রেখেছে। আরও বলেন, আল্লাহ যদি সহায় থাকে তাহলে ধানের শীষের বিজয়ে তিনি শতভাগ আশাবাদী।

এ বিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের শক্ত অবস্থানে দুই প্রার্থী সাংবাদিক মোজাফফর রহমান ও অধ্যাপক সাবির হোসেন বিএনপি নেতার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সাধারণ ভোটাররা ভয়ে নয় সময়পোযোগী প্রার্থীর জন্য স্বেচ্ছায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছে।

http://www.anandalokfoundation.com/