ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আড়িয়াল খাঁর ভাঙ্গনে বসতবাড়ি, ফসলী জমি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিলীন

admin
September 5, 2015 9:14 am
Link Copied!

মো. আমির সোহেল, কালকিনি (মাদারীপুর) থেকে: মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গত কয়েকদিন ধরে আড়িয়ালখা নদীর অব্যহত ভাঙ্গনে অর্ধশতাধিক পরিবারের বাড়িঘড় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এতে এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে চড়ম দূর্ভোগ দেখা দিয়েছে।

আড়িয়ালখা নদীর তীব্র স্রোতে উপজেলার এনায়েতনগর ও বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের খাসেরহাট এলাকার জহিরুদ্দিন মোল্লা, নওশের মোল্লা, শিরু সরদার ও গিয়াশ উদ্দিন মোল্লার বসতবাড়ি এবং আলীপুর এলাকায় ৭টি পরিবারের বসত বাড়ি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। অপর দিকে আলীপুর উচ্চ বিদ্যালয়, আলীপুর দাখিল মাদ্রাসা, লালচান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মোল্লারহাট বাজারসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ী বাঁধসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভাঙ্গন কবলে পড়েছে। ভাঙ্গনে সমিতির হাট থেকে খুনের চড় পযর্šÍ প্রায় ৩ কিলোমিটার ফসলি জমি ও গাছ-পালা হুমকিতে পড়েছে। ভাঙ্গন রোধের জন্য স্থানীয় লোকজন অনেকে জিও ব্যাগ ও বাশেঁর পাইলিং দিচ্ছে । অনেকেই তাদের ঘড়বাড়ি অন্য জায়গায় সরিয়ে নিচ্ছে। ভাঙ্গন কবলিত কৃষক মোশারফ হোসেন, মাহবুব হোসেন ও সুমন বলেন, এ ভাঙ্গন রোধে জরুরী ভিক্তিতে কোন ব্যবস্থা না নিলে আমাদের কষ্টের কোন সীমা থাকবেনা।

এ ব্যাপারে মাদারীপুর পানি উন্নয় বোর্ডের প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ভাঙ্গন রোধে ইতি মধ্যেই বালির বস্তা, বাশেঁর পাইলিং এবং জিও ব্যাগে বালু ফেলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত উদ্দিন বলেন, ভাঙ্গন কবলিত এলাকার লোকজনের তালিকা তৈরী করা হচ্ছে। শিগ্রই সহযোগীতা পৌছে যাবে।

কালকিনি উপজেলা চেয়ারম্যান মো. তৌফিকুজ্জামান শাহিন বলেন, বার-বার নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। এ ভাঙ্গন রোধে সরকারের জরুরী ভিক্তিতে ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

http://www.anandalokfoundation.com/