শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
অবশেষে মাবিয়ার হাত ধরে স্বর্ণ পেল বাংলাদেশ নবাবগঞ্জে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ধামইরহাটে জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জখম-১১, রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি ৫ জন ফরিদপুর চিনিকলের ৪৪তম আখ মাড়াই শুরু বিচারকরা দেশ, জনগণ ও সংবিধানের প্রতি দায়বদ্ধ হয়ে সবার প্রতি ন্যায় বিচার করুন -শেখ হাসিনা বাংলাদেশ-ভারতের অত্যন্ত সুসম্পর্ক তাই আমাদের প্রত্যাশা, ভারত আতঙ্ক সৃষ্টির মতো কিছু করবে না -পররাষ্ট্রমন্ত্রী হৃদ স্পন্দন বন্ধ হওয়ার ৬ ঘণ্টা পর বেঁচে উঠলেন স্পেনের এক নারী মোদী আমাদের সাথে ক্রিমিনালের মতো ব্যাবহার করছে -ফারুখ আব্দুল্লার আমার ব্যক্তিগত কোন মোবাইল ফোন নেই -ডোনাল্ড ট্রাম্প কোন দিন জন্মে কেমন মানুষ

রংপুরের প্রায় বেশ কিছু জায়গায় রেললাইনের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা

রেললাইনের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা

জয়কান্ত রায়ঃ রংপুর অঞ্চলের রেললাইন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে চলাচল । এ অঞ্চলে চলাচল করা ৮টি আন্ত:নগর ট্রেনে প্রতিদিন যাতায়াত করেন অন্তত ৬০ হাজার মানুষ। রেল বিভাগের তথ্যমতে, চলতি বছর রংপুরের বিভিন্ন স্থানে ১০টি ট্রেন দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে।
গেটম্যান ছাড়াই ট্রেন চলাচল করে এ অঞ্চলের নীলফামারী জেলার চিলাহাটি রেললাইনে। লাইনটির বিভিন্ন স্থানে স্লিপার নষ্ট হয়ে গেছে, অনেক স্থানে নেই নাট-বল্টু। ব্যালাস্টের (পাথর) ঘাটতিও রয়েছে।
কুড়িগ্রাম-তিস্তা রেলপথে বড়পুলের পাড় নামক স্থানে দেবে গেছে সেতুর পিলার। মাটি সরে ঝুঁকিপূর্ণ হয়েছে প্রায় ৩৩ কিলোমিটার রেলপথ। একই অবস্থা লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধাসহ রংপুর অঞ্চলের অধিকাংশ রেলপথের।
এ কারণে নিরাপদ ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। নিরাপদ ও সেকশনাল গতিতে ট্রেন চলাচলের জন্য রেলপথগুলোর স্লিপার বদলানো, ব্যালাস্টিং, টেম্পিং ও ডিপ স্ক্রিনিং করা অতি জরুরি হয়ে পড়েছে। চলতি বছর রংপুরের বিভিন্ন স্থানে ১০টি ট্রেন দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে। রেলওয়ের তথ্য মতে, রংপুর বিভাগের আট জেলায় স্টেশন রয়েছে ৮৫টি। এর মধ্যে জনবল সংকটে ২২টি স্টেশন চলছে মাস্টার বিহীন। ৪৭১টি ক্রসিংয়ের ঝুঁকিপূর্ণ স্থান ১৪৫টি। আটটি আন্ত:নগর ট্রেনে প্রতিদিন অন্তত ৬০ হাজার মানুষ যাতায়াত করেন।
রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানায়, নীলফামারী জেলার নয়টি স্টেশনের মধ্যে ৫টিতেই নেই স্টেশন মাস্টার। আর ৯টি ক্রসিংয়ের দুইটি বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। গাইবান্ধায় ১১টি স্টেশন ও ৬৬টি ক্রসিং থাকলেও নেই পাঁচটির স্টেশন মাস্টার। এখানকার ৩৯টি ক্রসিং ঝুঁকিপূর্ণ। কুড়িগ্রামে ৮টি স্টেশন রয়েছে। এর ৪৭টি ক্রসিংয়ের মধ্যে সাতটি ঝুঁকিপূর্ণ।
তিনটি স্টেশন নিয়ে সাজানো ঠাকুরগাঁওয়ে রেলপথে ৫৬টি ক্রসিং। এরমধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ছয়টি। পঞ্চগড় জেলার ২টি স্টেশনের ৬টি ক্রসিংয়ের মধ্যে মাত্র দুইটি ঝুঁকিপূর্ণ।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 News Time Media Ltd.
IT & Technical Support: BiswaJit