13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করবেন বেগম জিয়া?

admin
December 15, 2017 12:41 am
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বেগম জিয়াকে। বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবীদের কয়েকজন বেগম জিয়াকে এই পরামর্শ দেন। বেগম জিয়া এ ব্যাপারে চিন্তা করবেন বলে জানিয়েছেন। বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন, বেগম জিয়া যদি সংলাপের জন্য টেলিফোন করেন তবে তা হবে ২০১৩ এর অক্টোবরের ঘটনার মধুর প্রতিশোধ। বেগম জিয়া কয়েক দফা, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সংলাপের আহ্বান জানান। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এধরনের সংলাপের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন। কম্বোডিয়া থেকে দেশে ফেরার পর গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একবার আলোচনার জন্য যে ঝাড়ি খেয়েছি, আর না।’

উল্লেখ্য,২০১৩র অক্টোবরে আন্দোলনরত বিএনপিকে নির্বাচনে আনতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংলাপের উদ্যোগ নেন। প্রায় সব রাজনৈতিক দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ধারাবাহিক সংলাপে অংশ নিলেও বিএনপি অংশ নেয়নি। প্রধানমন্ত্রী ২৩ অক্টোবর বেগম জিয়াকে টেলিফোন করে গণভবনে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানান। বেগম জিয়া ওই আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করে তীব্র ভাষায় প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেন। বেগম জিয়ার কিছু শব্দচয়ন ছিল একদম নিম্নরুচির। প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণপত্র প্রত্যাখ্যান করায় দেশে-বিদেশে বেগম জিয়া ব্যাপক সমালোচিত হন। এমনকি দলের মধ্যেও এই অসৌজ্যনতা নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হয়। এমনকি বিএনপি পন্থী হিসেবে পরিচিত গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ড. জাফরুল্লাহ মনে করেন, ‘ওই এক টেলিফোনেই শেখ হাসিনা একতরফা নির্বাচনের সুযোগ হাতের নাগালে পান। প্রাজ্ঞতায় তিনি বেগম জিয়াকে পরাজিত করেন।’

গত দুই বছর ধরে বিএনপি আগামী নির্বাচনের জন্য সংলাপ এবং সমঝোতার কথা বলছে। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম জিয়া অন্তত ৮টি বিভিন্ন বক্তব্য়ে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন। আওয়ামী লীগ জবাবে স্পষ্ট করে বলেছে সংলাপের কোনো সুযোগ নেই।

এরকম পরিস্থিতে রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে বেগম জিয়াকে প্রধানমন্ত্রীকে টেলিফোন করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রগুলো ড. মাহাবুবউল্লাহ, ড. জাফরুল্লাহ সহ আরও কয়েকজন এই প্রস্তাব দিয়েছেন। প্রথমে বেগম জিয়া মৃদু আপত্তি করলেও পরে রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে এটাকে বিবেচনায় নিয়েছেন বলেই জানা গেছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার এরকম সৌজন্যতা, রুচিবোধ ও শিষ্ঠাচার নেই। একজন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কীভাবে কথা বলতে হয়, সেটাই যে তিনি জানেন না, তাতো ২০১৩ তেই আমরা দেখেছি। এখন তিনি ফোন করে কী বলবেন। ক্ষমা চাইবেন নাকি ঝগড়া করবেন?’আওযামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি এবার নাকে খত দিয়ে নির্বাচনে আসবে। টেলিফোন করলে সেটা হবে নাকে খত দেওয়ার প্রথম ধাপ।’

http://www.anandalokfoundation.com/