13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সকল বৈপ্লবিক পরিবর্তনেই তারুণ্যের ভূমিকা অনবদ্য -তথ্যমন্ত্রী 

Rai Kishori
September 6, 2019 9:24 pm
Link Copied!

‘বাংলাদেশ ও সমগ্র বিশ্বে সকল বৈপ্লবিক পরিবর্তনে তারুণ্যের  ভূমিকা অনবদ্য। বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ, নব্বইয়ের গণ-আন্দোলনসহ সকল গণতান্ত্রিক সংগ্রামে দেশের তরুণদের ভূমিকা ছিল ঐতিহাসিক। তারা সংগ্রাম করেছে, যুদ্ধ করেছে, প্রয়োজনে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিতে কুণ্ঠিত হয়নি। তারুণ্যই শক্তি।’  বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।
আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘স্টেজ ফর ইয়ুথ’ সংগঠনের উদ্বোধন অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘২০৪১ সালের মধ্যে যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখিয়েছেন, এই তরুণদের হাত ধরেই বাংলাদেশ তার স্বপ্নের ঠিকানায় শুধু পৌঁছেই যাবে না, সেই ঠিকানা অতিক্রম করতে পারবে।’
‘জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ বাংলাদেশকে উন্নতির যে সোপানে নিয়ে এসেছেন, তা নিয়ে আমরা বিশ্বের কাছে গর্ব করতে পারি’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীনতার সময় এদেশের মানুষের গড় আয়ু ছিল ৩৯, এখন তা ৭৩ বছর, যেখানে পাকিস্তানের ৬৩, ভারতের ৬৯। ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা যখন দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন, তখন আমাদের ৪০ শতাংশ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করত, এখন তা ২০ শতাংশে নেমে এসেছে। মানবিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সকল সূচকে আমরা পাকিস্তানকে বহু পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছি। সেকারণে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী যখন আগামী দশ বছরে তাদের দেশকে সুইডেনের মতো বানাবেন বলেন, সেখানকার বুদ্ধিজীবীরা টিভি টক শো’তে বলেন, দশ বছরে পাকিস্তানকে বাংলাদেশের পর্যায়ে আনার চেষ্টা করা উচিত।’
ড. হাছান বলেন, ‘বাংলাদেশ একসময় বন্যা, ঘুর্ণিঝড়, দুর্ঘটনায় বিশ্ব সংবাদ হতো। আর এখন আমরা বিশ্ব সংবাদ হই, যখন এদেশের কিশোরী ফুটবল দল যখন ১৩০ কোটি মানুষের দেশ ভারতকে হারিয়ে দেয়, আমাদের ক্রিকেট দল যখন ক্রিকেট বিশ্বের সকল পরাশক্তিকে একে একে হারিয়ে দেয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট থাকাকালে বারাক ওবামা যখন তার বাবার দেশ কেনিয়ায় গিয়ে বলেন, বাংলাদেশের কাছে আফ্রিকার দেশগুলোর অনেক শেখার আছে, যখন বিশ্বব্যাংক কানাডার আদালতে হেরে যায়, তাদের প্রধান অর্থনীতিবিদ বাংলাদেশকে খোলা চেক দিতে চায়- বলে কত টাকা বাংলাদেশ নিতে চায়, টাকার অংক বসিয়ে নিতে পারে।’
‘দেশকে এই অবিস্মরণীয় উন্নতির পথে ধাবমান রাখতে তরুণরা হবে আমাদের অন্যতম প্রধান শক্তি’ বলে মন্ত্রী ‘স্টেজ ফর ইয়ুথ’র উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আমরা সবসময় নতুনের সাথে আছি। স্টেজ ফর ইয়ুথ তরুণদের কর্মসংস্থানে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’
স্টেজ ফর ইয়ুথ’র প্রেসিডেন্ট ইলিয়াস হোসাইনের সভাপতিত্বে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র একরামুল হক টিটু আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন।
http://www.anandalokfoundation.com/