ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যশোরে ৬শ’ ৩৭ মন্ডপে চলছে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি

admin
October 10, 2015 6:46 pm
Link Copied!

যশোর প্রতিনিধিঃ যশোর জেলায় এবার ৬শ’৩৭টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এলক্ষ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্নের পথে। আগামী ১৯ অক্টোবর ষষ্ঠীপূজার মধ্যদিয়েই শুরু হবে দুর্গাপূজার। পাঁচদিনব্যাপী উৎসবের শেষ হবে আগামী ২৩ অক্টোবর প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে।

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মন্ডপে মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরির শেষাংশের কাজ। একই সাথে স্ব স্ব পূজা উদযাপন কমিটি ব্যস্ত মন্ডপ সাজানো, প্যান্ডেল ও তোরণ সাজানো কাজে। জেলা ও উপজেলার বিপণী বিতানগুলোতে ক্রেতাদের রয়েছে উপচেপড়া ভিড়। দিন যতই এগিয়ে আসছে ক্রেতাদের ভিড় ততই বাড়ছে। সব মিলিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ।

পূজা উদযাপন পরিষদ যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জানান, এবারের শারদীয় দুর্গোৎসবে জেলার ৮ উপজেলায় ৬৩৭ মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে যশোর সদর উপজেলায় ১৩৫ মন্ডপে, শার্শা উপজেলায় ২৮ মন্ডপে, ঝিকরগাছায় ৫২ মন্ডপে, কেশবপুরে ৮৫ মন্ডপে, মণিরামপুর উপজেলায় ৮৭ মন্ডপে, অভয়নগরে ১১৫ মন্ডপে, বাঘারপাড়ায় ৮৫ মন্ডপে এবং চৌগাছা উপজেলায় ৪৮ মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিটি মন্ডপে প্রতিমা শিল্পীরা প্রতিমা তৈরির কাজে ব্যস্ত দিন পার করছেন। একই সাথে স্ব স্ব পূজামন্ডপ কমিটি পূজা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে কাজ করে চলেছেন। কয়েকজন শিল্পীর সাথে আলাপ করলে তারা জানান, অনেকে এককভাবে, আবার অনেক শিল্পীরা টিমভিত্তিক মন্ডপে মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তারা আরও জানান, ছোট ছোট প্রতিমা তৈরিতে তারা ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা মজুরি নিচ্ছেন। আবার যে সমস্ত বারোয়ারি বা বড় মন্ডপ প্রতিমা বেশি তৈরি করতে হচ্ছে, সেখানে ৭০ হাজার থেকে লাখ টাকাও মজুরি নিচ্ছেন। পূজা উপযাপন কমিটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দীপংকর দাস রতন বলেন, পাঁচদিনব্যাপী দুর্গাপূজায় কমিটির পক্ষ থেকে সারা জেলায় ভেজিলেন্স টিম গঠন করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা পর্যায়ক্রমে জেলার ৮ উপজেলার পূজা মন্ডপগুলো পরিদর্শন করবে। একই সাথে প্রত্যেক পূজামন্ডপে স্থানীয় পূজা কমিটির স্বেচ্ছাসেবকরা সার্বক্ষণিক মন্ডপে মন্ডপে টহলে থাকবে। পুলিশ ও আনসার সদস্যদের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় তারাও এদের সহযোগিতা করবে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, প্রতিবারের ন্যায় এবারও সরকারের পক্ষ থেকে মন্ডপে মন্ডপে দুর্গাপূজার অনুদান পাওয়া যাবে। জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে পাওয়ার পর তা উপজেলাভিত্তিক কমিটির মাধ্যমে স্থানীয় মন্ডপ কমিটির কাছে প্রদান করা হবে। সবশেষে পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অসীম কুন্ডু ও সম্পাদক দীপংকর দাস রতন শারদীয় দুর্গোৎসব সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার এ লক্ষ্যে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে এক প্রস্তুতিমুলক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সার্বিক বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

http://www.anandalokfoundation.com/