13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ৬ ও ৭ মার্চ

Link Copied!

আগামী ৬ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২০২৫ কার্যকরী কমিটির  নির্বাচন। সভাপতি, সম্পাদকসহ মোট ১৪টি পদে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

১৩ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাতে  আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হকের  সভাপতিত্বে তাঁর গুলশানের বাসায় মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় প্রার্থীতা চূড়ান্ত করা হয়।

এবার মোট ভোটার সংখ্যা প্রায় ৮ হাজার । বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সাদা প্যানেলের চূড়ান্ত  প্রার্থীবৃন্দ হলেন ১।  সভাপতি: সিনিয়র এডভোকেট আবু সাঈদ সাগর  ২।  সহ-সভাপতি: এডভোকেট  রমজান আলী শিকদার  ৩। সহ-সভাপতি: ড. দেওয়ান মোহাম্মদ আবু ওবায়েদ হোসেন সেতু ৪।  সম্পাদক: সিনিয়র  এডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক ৫।  ট্রেজারার: এডভোকেট মোহাম্মদ নুরুল হুদা আনসারী ৬।  সহ-সম্পাদক: এডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির ৭। সহ-সম্পাদক: ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব  ৮।  সদস্য: ব্যারিস্টার সৌমিত্র সরদার , ৯। সদস্য: এডভোকেট মো. খালেকুজ্জামান ভূঁইয়া, ১০।  সদস্য: এডভোকেট রাশেদুল হক খোকন ,১১। সদস্য: এডভোকেট মাহমুদা আফরোজ   ১২।সদস্য: এডভোকেট বেলাল হোসেন শাহীন , ১৩।সদস্য: খালেদ মোশাররফ রিপন, ১৪। সদস্য: এডভোকেট রায়হান রনী।

সভায় উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক ও সিনিয়র এডভোকেট জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন,  ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মাননীয়  মেয়র ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য সচিব ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস, বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান জনাব  এডভোকেট   এ. এম. আমিন উদ্দিন, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান জনাব সৈয়দ রেজাউর রহমান, সাবেক খাদ্য মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট মো. কামরুল ইসলাম এম. পি, সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র এডভোকেট মো মোমতাজ উদ্দিন ফকির,  সাবেক রেলপথ মন্ত্রী জনাব এডভোকেট  নুরুল ইসলাম সুজন এম. পি, সাবেক বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী জনাব এডভোকেট মাহবুব আলী, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল ও সিনিয়র এডভোকেট এস. এম. মুনির।

উল্লেখ্য, সমিতির নির্বাচনে বরাবরই মূলত দুটি প্যানেলের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়ে থাকে। একটি হচ্ছে, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন আইনজীবীদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ (সাদা হিসেবে পরিচিত) মনোনীত প্যানেল। অন্যটি বিএনপির নেতৃত্বাধীন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল (নীল হিসেবে পরিচিত)।

গত বছর (২০২৩-২৪) উপকমিটির আহ্বায়ক নিয়ে বিএনপি-সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীদের আপত্তি এবং এর জেরে ভাঙচুর, পুলিশের পিটুনি, হট্টগোল ও ধাক্কাধাক্কির মধ্যে দিয়ে ১৫ ও ১৬ মার্চ ভোট হয়। অবশ্য সেই নির্বাচন আনুষ্ঠানিক বর্জনের ঘোষণা না দিলেও নতুন করে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার দাবি তোলেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। গত বছরের ১৭ মার্চ রাতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ফলাফলে সভাপতি-সম্পাদকসহ ১৪টি পদের সব কটিতেই জয় পান আওয়ামী লীগ-সমর্থিত প্যানেলের আইনজীবীরা।

এবার জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল এখনো নির্বাচনে অংশ নেওয়া বা প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেনি।

http://www.anandalokfoundation.com/