13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তীতে দুদেশের রাষ্ট্রপতির শুভেচ্ছা বিনিময়

নিউজ ডেস্ক
February 17, 2022 11:21 pm
Link Copied!

বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী গতকাল উদ্যাপিত হয়েছে। ১৯৭২ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি দেশ দুটির মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরপরই যে দেশগুলো স্বীকৃতি দিয়েছিল তাদের মধ্যে সিঙ্গাপুর অন্যতম। দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদ এবং সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি হালিমাহ ইয়াকুব পরস্পরকে শুভেচ্ছা বার্তা প্রেরণ করেছেন।

প্রেসিডেন্ট মোঃ আব্দুল হামিদ এবং প্রেসিডেন্ট হালিমাহ ইয়াকুব তাঁদের বার্তায় দুই বন্ধু রাষ্ট্রের মধ্যে বিরাজমান সুদৃঢ় দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিষয়ে গভীর সন্তোষ প্রকাশ করেন। উভয় নেতা পরবর্তী ৫০ বছর ও অদূর ভবিষ্যতে দুদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো জোরদারের ব্যাপারে দৃঢ় আস্থা ব্যক্ত করেন।

প্রেসিডেন্ট মোঃ আব্দুল হামিদ সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হালিমাহ ইয়াকুবকে প্রেরিত বার্তায় বাংলাদেশের জনগণ এবং তাঁর নিজের পক্ষ হতে দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে উষ্ণ অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। বাংলাদেশকে স্বীকৃতিদানকারী প্রথম কয়েকটি দেশের অন্যতম সিঙ্গাপুরের ভূমিকা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করে তিনি বলেন, শুরু থেকেই বন্ধুভাবাপন্ন দুদেশের সম্পর্ক পারস্পরিক আস্থা, সম্মান ও সহযোগিতার ভিত্তিতে অনেক দৃঢ় হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের দুই জাতি অনেক ভাগ্যবান কারণ আমরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং লি কুয়ান ইউ-এর মতো দূরদর্শী নেতা পেয়েছি। তাঁদের আদর্শ ও স্বপ্নে অনুপ্রাণিত হয়ে আমাদের দুই দেশ আঞ্চলিক ও বিশ্বশান্তি, নিরাপত্তা এবং সমৃদ্ধির লক্ষ্যে সহযোগীর ভূমিকা পালন করে আসছে।

রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নে উদ্বুদ্ধ বাংলাদেশের পরিশ্রমী জনগণ অসাধারণ আর্থ-সামাজিক সাফল্য অর্জনে সক্ষম হয়েছে এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই অর্জনকে বিস্ময়কর উন্নয়ন হিসেবে মূল্যায়ন করেছে। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ এদেশের জনগণের অপ্রতিরোধ্য সংগ্রামের আরেকটি স্বীকৃতি।

সিঙ্গাপুরকে বাংলাদেশের অবিচল বন্ধু এবং উন্নয়ন ও অগ্রগতির সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, আমাদের পরীক্ষিত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ভিত্তি—দুদেশের অভিন্ন স্বার্থ ও সহযোগিতা বিশেষ করে, দুদেশের জনগণের বন্ধন, বাণিজ্য, বিনিয়োগ, ব্যবসা, স্বাস্থ্য, পর্যটন প্রভৃতি ক্ষেত্রে বিস্তৃত।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বৈশ্বিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ফোরামেও মানবতার পক্ষে আমরা অভিন্ন অবস্থান নিয়ে একসাথে কাজ করে থাকি।

সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি হালিমাহ ইয়াকুব বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদকে প্রেরিত বার্তায় সিঙ্গাপুরের জনগণের পক্ষে বাংলাদেশের জনগণকে দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তীর শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে ১৯৭২ সালে সিঙ্গাপুর বাংলাদেশের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে। সেই থেকে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অর্থবহ ও পারস্পরিক কল্যাণে ক্রমশই জোরদার হচ্ছে।

হালিমাহ ইয়াকুব বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি সত্ত্বেও সিঙ্গাপুর ও বাংলাদেশ পারস্পরিক সহযোগিতার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশে বিনিয়োগকারী শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর মধ্যে সিঙ্গাপুর অন্যতম এবং বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সম্ভাবনার ব্যাপারে অত্যন্ত আশাবাদী।

সিঙ্গাপুরের উন্নয়নে বাংলাদেশি প্রবাসীদের অবদানেরও প্রশংসা করেন দেশটির রাষ্ট্রপতি। আগামী বছরগুলোতে দুদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো জোরদারের ব্যাপারে রাষ্ট্রপতি হালিমাহ ইয়াকুব দৃঢ় আস্থা ব্যক্ত করেন।

http://www.anandalokfoundation.com/