13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাঁচ বছরের ভারতীয় ভিসা দেওয়ার আশ্বাস

admin
August 19, 2016 6:20 pm
Link Copied!

মো: আনিছুর রহমান ,বেনাপোল প্রতিনিধিঃ ভারতের ঢাকায় নিযুক্ত হাই কমিশনার শ্রী হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বেনাপোল সিএন্ডএফ এ্যসোসিশনে বৈঠক , রেল ষ্টেশন, বেনাপোল কাষ্টমস হাউজ,চেকপোষ্ট কাষ্টমস এবং আন্তর্জাতিক প্যচেঞ্জার টার্মিনাল পরিদর্শন করেছেন। শুক্রবার বেলা ১১ টার সময় তিনি বেনাপোল আসেন।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এ্যাসোসিয়েশনে তিনি সিএন্ডএফ এবং আমাদানি রফতানি কারকদের সাথে বৈঠক করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের ফাষ্ট সেক্রেটারি রাজেস কোকাই, ফাষ্ট সেক্রেটারি ও রেলওয়ে উপদেষ্টা দিবানজন রায় হাই কমিশন অব ইন্ডিয়া, শিশির কাটারি সেকেন্ড সেক্রেটারি বানিজ্য হাই কমিশন অব ইন্ডিয়া, প্রেস সেক্রটারি রাজন মন্ডল। অপরদিকে বাংলাদেশের পক্ষে এ্যাসোসিয়েশনে উপস্থিথ ছিলেন বেনাপোল সিএন্ডএফ এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান স্বজন, সাধারন সম্পাদক ইমদাদুল হক  লতা, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মহসিন মিলন জামাল হোসেন, প্রমুখ। ভারতীয় হাই কমিশনারের হাতে  ক্রেষ্ট ও ফুল তুলে দেন এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান স্বজন ও সাধারন সম্পাদক ইমদাদুল হক লতা।

বাংলাদেশের ব্যাবসায়িরা ভারতের ভিসা, এন্ট্রি ভিসা, পন্য দ্রুত পন্য খালাস নিয়ে এবং ওপারের টার্মিনালে বাংলাদেশের ট্রাকের পার্কিং নিয়ে কথা বলেন। এসময় হাইকমিশনার শ্রী হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন বিজিনেস ভিসা ৫ বছরের দেওয়া হবে। পোর্ট এন্ট্রি ভিসা ও ভবিষ্যাতে দেওয়া হবে। বেনাপোলের ওপারে ভারতের ট্রাক টার্মিনালে যাতে বাংলাদেশী ট্রাক ড্রাইভাররা যাতে সুযোগ সুবিধা পায় সে ব্যাপারে তিনি ওপারের পেট্রাপোল বন্দরের  কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিবেন। তিনি বলেন বেনাপোল- পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে যাতে দুদেশের ব্যাবসা বানিজ্যও গতি আরো বৃদ্ধি পায় সে ব্যাপারে যা যা প্রয়োজন তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন। তিনি বলেন ভারত থেকে যাতে বাংলাদেশে কম খরছে রেল যোগে পন্য আমদানি রফতানি করা যায় সে দিক ও দেখবেন।

বৈঠক শেষে বেনাপোল এ্যসোসিয়েশন থেকে পনে ১২ টার সময় বের হয়ে তিনি বেনাপোল রেলষ্টেশন পরিদর্শন করেন, এরপর সেখানে থেকে তিনি বেনাপোল কাষ্টমস হাউজে কাষ্টমস কর্মকর্তাদের সাথে সংক্ষিপ্ত সময়ে মত বিনিময করেন।  তারপর তিনি  আন্তর্জাতিক প্যচেঞ্জার টার্মিনাল এর ভিতর দিয়ে বেনাপোল চেকপোষ্ট কাষ্টমস এবং ইমিগ্রেশন পরিদর্শন করেন। কি ভাবে ভারত – বাংলাদেশের পাসপোর্টযাত্রীরা যাতায়াত করেন তা পর্যবেক্ষন করেন। এরপর তিনি গাড়িযোগে ভারতের পেট্রপোল এর সুসংহত ইন্ট্রিগ্রেটেট চেকপোষ্ট পরিদর্শন করে পেট্রপোল বন্দরের কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করার জন্য প্রবেশ করেন।

http://www.anandalokfoundation.com/