13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর উত্তাল হয়ে উঠবে ভারতের রাজনীতি -নরেন্দ্র মোদি

Link Copied!

পশ্চিমবঙ্গের কাকদ্বীপে শেষ সভা করলেন নরেন্দ্র মোদি। এদিনের জনসভায় বক্তব্যে তৃণমূলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেও একটি বারের জন্যও নাম নেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এ ছাড়াও তার বক্তব্যে ৪ জুনের পর বাংলা তথা সারাদেশের পরিস্থিতি কী হবে, তা নিয়েও ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন প্রধানমন্ত্রী। নিশানা করেছেন তৃণমূল, কংগ্রেসসহ বিরোধী দলগুলোকে।

বুধবার একসঙ্গে তিন কেন্দ্রে প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে নেমেছিলেন মোদি। তার মধ্যে ছিল ডায়মন্ড হারবারও। যে কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী করেছে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেককে। তবে এ জনসভায় তার যাবতীয় নিশানায় ছিল তৃণমূল, কংগ্রেসসহ জাতীয় স্তরের সব বিরোধী দল। কাকদ্বীপের সভা থেকে তোষণ, কাটমানি থেকে শুরু করে মুসলিমদের ওবিসি সার্টিফিকেট দেওয়া এবং বাংলায় অনুপ্রবেশকারীদের রমরমা বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্যের শাসক দলকে নিশানা করেন মোদি।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর ভারতের রাজনীতি ‘উত্তাল’ হয়ে উঠবে। ‘দিশেহারা’ হয়ে পড়বে পরিবারতান্ত্রিক বিরোধী দলগুলো। তারা আপনা থেকেই দিশেহারা হয়ে যাবে। ওই দলগুলোর কর্মীরাও হাঁপিয়ে উঠেছে। ওরাও দল থেকে সরবে।

নরেন্দ্র মোদি আরও বলেন, বাংলার মানুষদের নিয়ে তৃণমূলের কোনো ভাবনা নেই। শুধু তোলাবাজি এবং কাটমানি নিয়েই ওদের যত ভাবনা। এই তৃণমূলকে কি সাজা দেবেন না? তৃণমূলের সব কাজে কাটমানি চাই। বাচ্চাদের মিড ডে মিলেও কাটমানি চাই ওদের। এ ছাড়াও তৃণমূলের বিরুদ্ধে সন্ন্যাসীদের অপমান এবং গালাগাল করার অভিযোগ তোলেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু তা করতে গিয়ে মমতা বা অভিষেকের নাম পুরো বক্তৃতায় একবারের জন্যও উল্লেখ করেননি তিনি।

http://www.anandalokfoundation.com/