13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এসএমই খাতের যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে ইতিবাচক ভূমিকা রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

পিআইডি
May 19, 2024 5:23 am
Link Copied!

২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ’ গঠনের লক্ষ্যে এসএমই খাতের যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও উদ্যোক্তাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ইতিবাচক ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন।

আজ ১৯ মে ‘জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা ২০২৪’ উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতির বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বাণীতে বলেন, “ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশন (এসএমই ফাউন্ডেশন) কর্তৃক একাদশ ‘জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা ২০২৪’ আয়োজনের উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। এ উপলক্ষ্যে মেলায় অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তা, প্রতিষ্ঠানসহ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত। দেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্যবিমোচন ও জীবনযাত্রার মানোন্নয়নের পাশাপাশি অল্প পুঁজিতে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এ খাতের ভূমিকা অনস্বীকার্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে সরকার এসএমই খাতের বিকাশ ও টেকসই শিল্পায়ন নিশ্চিতের লক্ষ্যে এসএমই নীতিমালা ২০১৯ প্রণয়ন করেছে। জাতীয় শিল্পনীতিতে এসএমই শিল্পকে শিল্পায়নের মূল চালিকাশক্তি হিসেবে বিকশিত করতে সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টিতে জোর দেয়া হয়েছে। রূপকল্প ২০২১ এর সফল বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে। জাতীয় শিল্পনীতি ও এসএমই নীতিমালার যথাযথ বাস্তবায়নের মাধ্যমে জিডিপিতে এসএমই খাতের অবদান বিদ্যমান ২৫ শতাংশ থেকে ৩২ শতাংশে উন্নীতকরণে সকলকে আন্তরিক প্রয়াস অব্যাহত রাখতে হবে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি আশা করি, জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা ২০২৪ উদ্যোক্তাদের পারস্পরিক সংযোগ বৃদ্ধির পাশাপাশি পণ্যের গুণগত মানোন্নয়ন, উৎপাদিত পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ এবং এসএমই পণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গঠনের লক্ষ্যে এসএমই খাতের যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে আমি সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও উদ্যোক্তাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ইতিবাচক ভূমিকা রাখার আহ্বান জানাই।

http://www.anandalokfoundation.com/