13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আমেরিকা ও ব্রিটেনের কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে ভারতের কঠোর অবস্থান

Link Copied!

আমেরিকা ও ব্রিটেনের কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে ভারতের কঠোর অবস্থান । ভারতে কাজ করা যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যভিত্তিক বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর ব্র্যান্ড ভ্যালু বা রয়্যালটির ওপর আরোপিত কর দ্বিগুণ করেছে ভারত সরকার। পাশাপাশি এসব কোম্পানির প্রযুক্তিগত পরিষেবার মাশুলও দ্বিগুণ করা হয়েছে। ভারতের কঠোর অবস্থান
ভারতীয় সংসদে ২০২৩–২৪ অর্থবছরের অর্থবিলের একটি সংশোধনী প্রস্তাবে এই আইন পাস করা হয়। এ ছাড়া সংশোধিত অর্থবিলে এইসব বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর প্রযুক্তিগত পরিষেবার মাশুলও ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২০ শতাংশ করা হয়েছে। এত দিন ভারতে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যভিত্তিক বহুজাতিক কোম্পানিগুলো ‘রাজকীয়’ যেসব সুবিধা পেত, তা এখন আর পাবে না। ফলে আমেরিকা ও ব্রিটেনের বহুজাতিক কোম্পানির ভারতীয় অংশ যেমন, হিন্দুস্তান ইউনিলিভার, পেপসিকো ইন্ডিয়া ও কোকা-কোলা ইন্ডিয়াকে এখন থেকে উচ্চ হারে কর দিতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য সারা বিশ্ব থেকে যে পরিমাণে রয়্যালটি বাবদ আয় করে, তার ৬০ শতাংশের বেশি আসে ভারত থেকে। ফলে ভারতের এই পদক্ষেপকে এই দুই দেশের বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর জন্য একটি বড় ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে।
ভারতের অভ্যন্তরীণ আইন অনুসারে বহুজাতিক কোম্পানির জন্য সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ করের বিধান ছিল। কিন্তু দ্বিপক্ষীয় কর পরিহার চুক্তির আলোকে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের এসব কোম্পানি এত দিন ১০ শতাংশ হারে কর দিয়ে আসছিল। এখন সেই কর বাড়িয়ে ২০ শতাংশ করেছে ভারত সরকার। তবে কর বৃদ্ধির এই নিয়ম জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানিগুলোর ভারতীয় অংশের জন্য প্রযোজ্য হবে না। কারণ, এসব দেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় কর পরিহার চুক্তি অনুসারে ওই দুই দেশের কোম্পানিগুলোকে ১০ শতাংশের কম হারে কর দিতে হয়।
সারা বিশ্বেই ব্র্যান্ডের সুনাম বা রয়্যালটি বিক্রি করে থাকে বহুজাতিক কোম্পানিগুলো। বিনিময়ে বিদেশি ব্র্যান্ডের নামে পণ্য বিক্রি করা প্রতিষ্ঠানগুলো মূল কোম্পানিকে নির্দিষ্ট পরিমাণে অর্থ পরিশোধ করে। এটি রয়্যালটি ফি বা মাশুল বা ব্র্যান্ড ভ্যালু হিসেবে পরিচিত।
http://www.anandalokfoundation.com/