ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অধিকতর নিরাপত্তা চান বিদেশিরা

admin
October 6, 2015 9:23 pm
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টারঃ বাংলাদেশে পশ্চিমা স্বার্থের উপর হামলার শঙ্কা ও ছয় দিনে বাংলাদেশে দুই বিদেশি নাগরিক হত্যাকান্ডের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সরকারের কাছে আরো নিরাপত্তা চেয়েছেন দেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা। অবশ্য দুই বিদেশি হত্যাকান্ডের পর বাংলাদেশে বিদেশিদের নিরাপত্তায় বাংলাদেশ সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে তারা সন্তুষ্টিও প্রকাশ করেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় দেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে এসব কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ এম মাহমুদ আলী। ইতালি ও জাপানি নাগরিক হত্যাকান্ডের তদন্তের অগ্রগতি ও নিরাপত্তার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে এ আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশে পশ্চিমা স্বার্থের উপর হামলার শঙ্কা করে চলতি মাসে বাংলাদেশ সফর বাতিল করে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল। এ বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনার মধ্যেই ঢাকায় কূটনৈতিক পাড়ায় ও রংপুরে দুই বিদেশিকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এর মধ্যে দিয়েই বাংলাদেশে বিদেশিদের নিরাপত্তার বিষয়টি আলোচনায় আসে। বাংলাদেশে বিদেশিদের উপর হামলার ঘটনা বিরল। তবে এক সপ্তাহের মধ্যে দুই বিদেশিকে হত্যার ঘটনায় নড়েচড়ে বসে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এছাড়া হত্যাকান্ডের পর মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নামে দায় স্বীকার করে টুইট ও বিবৃতির খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে তা পরিস্থিতিতে নতুন মাত্রা যোগ করে। তবে এসবের সত্যতা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলাদেশে আইএসের কোনো অস্তিত্ব নেই। মঙ্গলবার বৈঠক শেষে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন বলেন, দুই বিদেশি নাগরিক হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে সরকার। বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম কূটনীতিকদের সাম্প্রতিক পরিস্থিতির বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামও এসময় উপস্থিত ছিলেন। রবার্ট গিবসন বলেন, বিদেশি নাগরিক হত্যার ঘটনায় ঘাতকদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এ বিষয়ে কোনো বাধা থাকবে না বলেও সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, সারাদেশে বিদেশি নাগরিকদের অতিরিক্ত নিরাপত্তা দেয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারেরর প্রতি আহবান জানানো হয়েছে।

এ বিষয়টি যে সরকারের দৃষ্টিতে আছে তা গতকালই উঠে এসেছে সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কথায়। গতকাল তিনি বলেছিলেন, ‘পদ্মাসেতু, উড়াল সড়ক, মেট্রোরেলসহ মেগা প্রকল্পে নিয়োজিত বিদেশি প্রতিনিধিদের সরকার পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেবে। বিশেষ করে দুটি মেগা প্রকল্পে কনসালট্যান্ট-কন্ট্রাকটর-এক্সপার্টরা আছেন, তাদের নিরাপত্তা আমাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ তারা যদি নিরাপত্তাহীন বোধ করে তাহলে কাজ করতে পারবেন না। বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীও এ বিষয়টি জানান কূটনীতিকদের। কূটনীতিকদের তিনি জানিয়েছেন, শুধু কূটনৈতিক এলাকাতেই নয়, বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলে যেসব বিদেশি উন্নয়নমূলক নানা কাজে জড়িত তাদের প্রত্যেকের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি।

বাংলাদেশে বিদেশিদের নিরাপত্তার যা যা করা প্রয়োজন তার সবই করছি।    বিদেশি হত্যাকান্ডের সঙ্গে আইএসের সম্পৃক্ততার বিষয়ে মাহমুদ আলী বলেন, কূটনীতিকদের বৈঠকে জানানো হয়েছে দুই বিদেশি হত্যাকান্ডে আইএস জড়িত তার বিশ্বাসযোগ্য কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রও অপরাধীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে বলেও জানান মাহমুদ আলী। ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেন ব্লুম বার্নিকাটও গতকাল চট্টগ্রামে বলেছিলেন, আইএসের দাবির সত্যতা যাচাই করছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ঘটনার তদন্তে তার দেশের আগ্রহের কথাও জানিয়েছিলেন বার্নিকাট। যুক্তরাষ্ট্র আগে থেকেই হামলার আশঙ্কা করছিল- এমন কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তবে তারা যে হামলার আশঙ্কা করছিল তা হয়নি।

সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে বিদেশিদের নিরাপত্তায় বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপে কূটনীতিকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী মাহমুদ আলী। অপরাধীদের ধরা সম্ভব হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়ন অব দ্য আর্থ’ লাভ করায় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান রবার্ট গিবসন। মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ৫ মিনিটে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এ বৈঠক শুরু হয়। প্রায় সোয়া এক ঘণ্টা স্থায়ীত্ব ছিল বৈঠকের। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচএম মাহমুদ আলী।

http://www.anandalokfoundation.com/