শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:২৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার বঞ্চিত করছে চিন ও পাকিস্তান -জাতিসংঘ টেরর ফান্ডি ও আর্থিক দুর্ণীতির অভিযোগে ফের কালো তালিকাভুক্ত হল পাকিস্তান ভারতের আর্থিক বৃদ্ধি আমেরিকা-চিনের থেকেও বেশি -ভারতের অর্থমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ফেরত না যাওয়ার উস্কানি দিচ্ছেন কিছু এনজিও -তথ্যমন্ত্রী সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থানের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে -নৌপ্রতিমন্ত্রী প্রবাসী কর্মীরা যেন সঠিক সময়ে সঠিক সেবা পায় -প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী রাষ্ট্রের শত্রুদের আর বাড়তে দেওয়া যাবে না -মোস্তাফা জব্বার ডেঙ্গু মোকাবিলায় জনগণকেও এগিয়ে আসতে হবে -স্থানীয় সরকার মন্ত্রী অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে হবে -পরিকল্পনামন্ত্রী নড়াইলে হিন্দু সম্প্রদায়ের আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সুবিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী

মাগুরায় ঈদের শেষ মহুর্তে জমে উঠেছে গরু ছাগলের হাট

মাগুরা থেকে আব্দুস সালেক মুন্নাঃ ঈদুল আজহাকে শেষ মুহুর্তে মাগুরায় গরু ছাগলের হাট জমে উঠেছে। গরু ছাগল কিনতে এখন ক্রেতারা ছুটছেন বিভিন্ন হাটে।

মাগুরা সদর উপজেলার রামনগর, আলোকদিয়া, কাটাখালী, জগদল, বালিদিয়া, পুলিশ লাইন চাইনা সেন্টার, ইটখোলা আবালপুর সহ বিভিন্ন হাটে ক্রেতা বিক্রেতাদের প্রচন্ড ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

কাটাখালীর হাটে মোঃ সোহেল আলম নামে এক ক্রেতা জানান, গতবারের থেকে এবার গরুর দাম অনেক বেশী। মাগুরার বিভিন্ন হাটে কয়েক সপ্তাহ ঘুরে তিনি কাটাখালীর হাটে এসেছেন গরু কিনতে। ঈদের শেষ মুহুর্তে গরুর দাম কিছুটা কম থাকায় তিনি ৪৮ হাজার টাকা দিয়ে একটি গরু কিনেছেন। যা গতবারের থেকে অনেক বেশী।

রমজান বিশ্বাস নামে এক বিক্রেতা জানান, গত বারের তুলনায় এবার গরুর দাম একটু বেশী। প্রথমদিকে ক্রেতা কম থাকায় আমরা গরু বিক্রি করতে পারিনি। তাই শেষ মুহুর্তে একটু কম দাম পেলেও গরু বিক্রি করবো। গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি হওয়ায় আমরা ভাল ক্রেতা পাচ্ছি না।
ঈদ উপলক্ষে জেলার ৪ উপজেলার সর্বসাংদা, বগুড়া,নাকল,রামনগর,খমারপাড়া,বরিশাট,মস্তাপুর,আমতৌল ,                                                                                                                                                                                                             অবালপুর,সাজিয়াড়া,কুকনা,সত্যিপুর,ঘাশিয়াড়া,ধনেশ্বরগাতি,থৈইপাড়া,গজর্দূবা তিলখড়ি সহ বিভিন্ন গ্রমে প্রায় ৩১,০০০ গরু-ছাগল মোটাতাজা করা হচ্ছে।পশুগুলো সুস্থ রাখতে রাত-দিন নিবিড় পরিচর্যা করা হচ্ছে অনেক গ্রমে রাতজেগে পাহারা দিচ্ছে গরু-ছাগল চুরি ঠেকাতে।

জেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: কানাই লাল স্বর্ণকার জানান,মাগুরা জেলাতে এবার মোট ১৫৪০০ টি গরু ও ১৩৬৭৭ টি ছাগল খামার ও ব্যক্তি পর্যায়ে ক্যামিকেল মুক্ত খাবার ছাড়া মোটতাজা করা হয়েছে যা জেলার মোট চাহিদার চেয়ে বেশি। মাগুরা সদরে ৪৬১০টি গরু ও ৩৮৪০টি ছাগল, শ্রীপুর উপজেলায় ৪৫৭৫ টি গরু ও ৪১৬০ টি ছাগল, শালিখা উপজেলায় ৩৬০০ টি গরু ও ২৯২০ টি ছাগল এবং মুহাম্মদপুর উপজেলায় ২৬১৫ টি গরু ও ২৭৫০ টি ছাগল কোরবানির জন্য মোটাতাজা করা হয়েছে। গত বছর মাগুরা জেলার ৪ টি উপজেলায় মোট ১০১২০ টি গরু,০৫টি মহিশ,১টি উট ও ৯০০৫ ছাগল কোরবানি করা হয়েছিল।

খামারিরা যাতে ক্যামিকেল যুক্ত খবার না ব্যবহার করে সে বিষয় খেয়াল রাখা হয়েছে। তিনি আর জানান,১ জন  পশু ডাকÍরকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট মোট ৫ টি মনিটরিং টিম গঠন করা হয়েছে। এ সকল টিম মাগুরার বিভিন্ন নামকরা হাটগুলেতে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত মনিটরিং করবে।  ইচ্ছা করলে যে কোন লোক গরু-ছাগল কেনার আগে পশুটির সুস্থতা পরীক্ষ করে নিতে পারবে।  সদর উপজেলার বগুড়া-মাঝাইল গ্রামের  মো: নওশের মাষ্টার জানান, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে প্রতি বছর চার পাঁচটি গরু ও আট দশটা ছাগল মোটাতাজা করে বিক্রয় করে থাকি।আমি গরুগুলোকে গমের ভুষি, মোলাসিস (চিটাগুড়),বাজার থেকে কেনা কাচাঁ ঘাস,বিচুলি, খৈল, খুদের ভাত সহ সুসম খাবার খাওয়াচ্ছি। আশ করছি গতবারের চেয়ে বেশী দাম পাব।

শ্রীপুর উপজেলার নাকল গ্রমের গরু ব্যবসায়ি মো:মুক্তি মাহামুদ জানান,প্রতি বছর আমি ২০ থেকে ২৫ ট্্রাক গরু ফেনী, নোয়খালি, সিলেট,ঢাকা ও চট্টগ্রমের বাজারে বিক্রি করে থাকি পর পর গত দুই বছর ভারত থেকে গরু আসাতে প্রচুর টাকা লোকসান গুনতে হয়েছে । আশা করি এবার ভাল দাম পাব ।
শ্রীপুরের মো:মূকুল শেখ জানান, দ্রবমূল্যের ঊর্দ্ধগতির বাজারে ক্যমিকেল মুক্ত খাবারে গরু মোটাতাজা করা খুব ব্যায়বহুল। যদি সঠিক দাম না পাই তবে এবার পথে বসতে হবে।

রামনগরের সিরাজুল ইসলাম জানান,এবার গরু-ছাগলের দাম গত বছরের চেয়ে অনেক বেশী। বিভিন্ন ভাবে টাকা জোগাড় করে সারা বছর সময় ও শ্রম ব্যয় করে কোরবানির হাটে পশুটি ভাল দামে বিক্রি হবে আশা।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit