ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যুক্তরাষ্ট্রে ৬ বছরের ইতিহাসে তেলের দাম সর্বনিম্ন

admin
August 20, 2015 7:38 pm
Link Copied!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ অস্বাভাবিকভাবে মজুদ বেড়ে যাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে অপরিশোধিত তেলের দাম ৬ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সর্বনিম্নে নেমে এসেছে। নিউইয়র্ক মার্কেন্টাইল এক্সচেঞ্জে বুধবার তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৪০.৮০ ডলারে নেমে এসেছে।

২০০৯ সালের ২ মার্চের পর এটিই তেলের সর্বনিম্ন দর। ওই সময় ব্যারেলপ্রতি তেলের দর ছিল ৪০.৪৬ ডলার। ব্লুমবার্গে চলতি বছরের জুন মাসের সর্বোচ্চ দর থেকে ৩০ শতাংশ কমে গেছে। তেলের দর কমলেও উৎপাদকারী কোম্পানিগুলো উৎপাদন অব্যাহত রেখেছে। অতিরিক্ত সরবরাহের কারণে তেলের দর ক্রমেই কমছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। তেলের অস্বাভাবিক সরবরাহ অব্যাহত থাকলে ব্যারেলপ্রতি ৩২ ডলারে নেমে আসতে পারে বলে আশঙ্কার করছে সিটি গ্রুপ। বুধবার প্রকাশিত কোম্পানিটির এক প্রতিবেদনে এ আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি যুক্তরাজ্যেও তেলের দর কমছে। লন্ডন বেইজড আইসিই ফিউচারস এক্সচেঞ্জে ব্রেন্ট ব্র্যান্ডের অপরিশোধিত তেলের ব্যারেলপ্রতি দর ৪৭.১৬ ডলারে নেমে এসেছে। ২০১৩ সালের জানুয়ারি মাসের পর এটিই সর্বনিম্ন লেনদেন। এদিকে তেলের দর কমে যাওয়ায় তেল উৎপাদনকারী কোম্পানি ম্যারাথন অয়েল করপোরেশন কোম্পানির শেয়ারের দর ৭ শতাংশ কমেছে।

তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদনকারী কোম্পানি এ্যানাডার্কো পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের শেয়ারের দর কমেছে ৪.৯ শতাংশ। বোস্টনের জন হ্যানককের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপনা পরিচালক চিফ হজ বলেন, চাহিদা ও যোগানের মধ্যে সমন্বয় না থাকার কারণে তেলের দর কমছে। চাহিদা ও যোগানের মধ্যে সমন্বয়ের জন্য আরও সময় লাগবে। ১৪ আগস্ট সপ্তাহ শেষে যুক্তরাজ্যের তেলের মজুদ ৪৫৬.২ মিলিয়ন ব্যারেলে দাঁড়িয়েছে। ওকলাহামায় তেলের মজুদ ৩ লাখ ৬২ হাজার ব্যারেল থেকে ৫৭.৪ মিলিয়ন ব্যারেলে উন্নীত হয়েছে। অপরিশোধিত তেল আমদানি প্রতিদিন ৬.১ শতাংশ থেকে ৮.৪ মিলিয়ন ব্যারেল বেড়েছে। অপরদিকে ডিজেল ও হিটিং অয়েলের মজুদ ৫ লাখ ৯৪ হাজার ব্যারেল থেকে ১৪৮.৮ মিলিয়ন ব্যারেলে উন্নীত হয়েছে। ২০১১ সালের অক্টোবরের পর এটিই সর্বোচ্চ মজুদ।

অপরদিকে পেট্রোলিয়াম রফতানিতকারক দেশগুলো দৈনিক ৩০ মিলিয়ন ব্যারেল কোটার চেয়ে বেশি তেল এক বছরের বেশি সময় ধরে উৎপাদন করছে। জুন মাসে সৌদি আরব রেকর্ড পরিমাণ তেল উৎপাদন করেছে। তেল উৎপাদনকারী শীর্ষস্থানীয় দেশ সৌদি আরব, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রসহ অপর দেশগুলো তেলের বাজার দখলে যুদ্ধে নেমেছে বলে একজন কর্মকর্তা মন্তব্য করেছেন। ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আদাবি বলেছেন, ক্রমবর্ধমান জনসংখার চাহিদা ও সেবা নিশ্চিত করতে তার দেশ আরও তেল উত্তোলন করবে। জুলাই মাসে দেশটি একদিনে রেকর্ড ৪.১৮ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদন করেছে।

http://www.anandalokfoundation.com/