13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যশোরে তরুনীকে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা

admin
September 5, 2015 11:30 pm
Link Copied!

যশোর প্রতিনিধিঃ ফুসলিয়ে ভূয়া কাগজপত্র সৃষ্টি করে বিয়ের কথা বলে এক তরুনীকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে রেখে স্বামীস্ত্রী হিসেবে বসবাস করে স্বামীর ভিটায় যেতে চাইলে বিয়ে অস্বীকার করার ঘটনায় কোতয়ালি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

যশোর আদালতের বিজ্ঞ বিচারকের নির্দেশে কোতয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ শুক্রবার মামলাটি নথিভূক্ত করেন।মামলার আসামীরা হচ্ছে,যশোর সদর উপজেলার ধোপাখোলা গ্রামের আসলাম গাজীর ছেলে রিপন হোসেন,সোহাগ ও তাদের মাতা কহিনুর বেগম।তরুনী তার দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন,তাদের বাড়ির সামনে রিপনের ফ্লেক্সি লোডের দোকান থাকায় তরুনীকে রিপন স্কুলে আসা যাওয়ার প্রাক্কালে উত্যক্ত করার এক পর্যায় ফুসলিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখায়।

গত ২৩ জুলাই রাত আনুমানিক পৌনে ১২ টায় তরুনী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে বাইরে বের হলে রিপন ও তার ভাই সোহাগ তরুনীকে জাপটে ধরে। তাকে মোটর সাইকেলে তুলে মাহিদিয়া গ্রামের দিকে যায়। সেখান থেকে সোহাগ চলে আসে। পরের দিন ২৪ জুলাই রিপন হোসেন তরুনীকে তার বোনের বাড়ি ডাকাতিয়া গ্রামে নিয়ে আসে। সেখানে নীল রংয়ের কাগজে স্বাক্ষর করে নিয়ে তাদের বিয়ে হয়ে গেছে বলে তরুনীকে জানায়।এমনকি ১০ দিন উক্ত বোনের বাড়িতে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরে উক্ত তরুনী রিপন হোসেনকে তার বাড়িতে নিয়ে যাবার কথা বললে কৌশলে নতুন হাট বাজারে রাতে এনে তরুনীকে ফেলে দিয়ে রিপন হোসেন পালিয়ে যায়। সেখান থেকে তরুনীকে তার পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়।পরে রিপন হোসেনদের বাড়িতে নিয়ে যাবার পর রিপন হোসেন বিয়ে অস্বীকার করে জানিয়ে দেন ভূয়া কাগজপত্র সৃষ্টি করে বিয়ের দলিল করা হয়েছে। তরুনীকে নিয়ে ঘর সংসার করার বিষয়টি অস্বীকার করেন।

কোন উপায়ূন্তর না পেয়ে তরুনী আদালতের স্মরনাপন্ন হন।বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে শুক্রবার কোতয়ালি থানায় লম্পট রিপন হোসেন,তার সহোদর ও মাতার বিরু্েদ্ধ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা নথিভূক্ত করেন।

http://www.anandalokfoundation.com/