ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঠাকুরগাঁয়ে ৫ বছরের এক শিশু ধর্ষনের শিকার

admin
September 30, 2015 1:25 pm
Link Copied!

আব্দুল আওয়াাল ক্রাইম রিপোর্টার। ঠাকুরগাঁয়ে ৫ বছরের এক শিশু ধর্ষনের শিকার। জানা যায়, ঠাকুরগাঁও জেলার রায়পুর ইউনিয়নের ছোট বেংরোল গ্রামের তাইজ উদ্দীন এর শিশু কন্যা তামান্না আক্তার তাসমিন(৫) অপহরণের শিকার হয়েছে ঐ গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক এর ছেলে শরিফ হোসেন(২৩) এর দোকানের ভিতরে।

গতকাল দুপুর ২টায় জৈনিক আব্দুর সাত্তার এর  বাড়ীর পূর্বপাশে রাস্তার ধারে আবু বক্কর সিদ্দিক এর ছেলে শরিফ হোসেন(২৩) এর দোকানে,তাইজ উদ্দীন এর শিশু কন্যা তামান্না আক্তার তাসমিন(৫) মুড়ি,নাড়–,চুইনগাম  ক্রয় করতে যায়। সে অবস্থায় আসামী শরিফ দোকানের ঝাপ বন্ধ করিয়া  দোকানের দরজা খোলা রাখিয়া বসে থাকে। তামান্না আক্তার দোকানের দরজার পাশে গিয়ে মুড়ি,নাড়–,চুইনগাম  ক্রয় করতে চায়। শরিফ তাকে দোকানের ভিতরে আসে খরচ নিতে বলে,দোকানে ডুকা মাত্র  তার হাত,মুক চিপে ধরে তাকে দোকানের ভিতরে প্রবেশ করায় এবং তাকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। পড়ে ধর্ষন শেষে মেয়েটি কান্না করতে করতে বাসায় যায়।

অভিভাকব সূত্রে জানা যায়, দুপুরে তামান্না আক্তার কান্না করতে করতে বাড়িতে আসে। পড়ে মেয়ের বাবা তার শরীরের বিভন্ন জায়গা থেকে রক্ত বাহির হতে দেখিয়া ও শরীরে বিভিন্ন রকমের দাগ দেখে তার স্ত্রী সহ তিনি তার শিশুর কাছে জিজ্ঞাসাবাদ করিতে থাকি। জিজ্ঞাসাবাদ করা কালিন আশেপাশের লোকজন ও সেখানে উপস্থিত হয় এবং তামান্না সবার সামনে উচ্চ গলায় বলে শরিফ ভাইয়া আমার মুখ চিপে ধরে আমাকে জোর পূর্বক দোকানের ভিতরে নিয়ে যায়,এবং আমার জামা খুলে আমার উপরে উঠেবসে। বিষয়টি শুনার পড়ে আমি শরিফ হোসেনের পিতা আবু বক্কর এর কাছে যাই কিন্তু সে এই বিষয়ে কোন কিছুই বলেন না। পড়ে আমি আমার কন্যানে নিয়ে বাসায় যাই । শিশু কন্যাটি ধর্ষনের ফলে সে অত্যন্ত অসুস্থ হয়ে যায়্ পড়ে,আমরা তাৎক্ষনিক ভাবে তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভতি করাই। হাসপাতালে আসে নুরুল চেয়াম্যানকে ও খাদেমুলকে ফোন করে,ডেকে আনি। পড়ে নুরুল চেয়ারম্যান ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি কে ফোন করে বিষয়টি জানায়। এই বিষয়ে আমি থানায় একটি এজহার করি।

এই বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি মশিউর রহমান জানায়,আমার কাছে ফোন আশা মাত্র আমি এবং পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ হাসপাতালে যাই এবং পর পরেই এস.অই মূর্তজা তার এক দল ফোর্স ঘটনা স্থলে অভিযান চালিয়ে আসামীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। মামলাটি প্রক্রিয়াধিন অবস্থায় রয়েছে।

http://www.anandalokfoundation.com/