13yercelebration
ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইরাকের কিরকুকে বিমান হামলায় ৫০ আইএস জঙ্গি নিহত

admin
March 8, 2016 5:43 pm
Link Copied!

নিউজ ডেস্কঃ ইরাকের কিরকুক প্রদেশে দেশটির সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় কমপক্ষে ৫০ আইএস জঙ্গি নিহত হয়েছেন। এছাড়াও, রামাদি শহরের পূর্বাঞ্চলে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট এবং সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ আইএস জঙ্গি। এদিকে, যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় ত্রাণ সরবরাহ আরও বাড়াতে দেশটির রুশ সামরিক ক্যাম্পগুলোতে প্রবেশাধিকার উন্মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে মস্কো। অন্যদিকে, যুদ্ধবিরতির মধ্যেই দেশটির কুর্দি যোদ্ধাদের লক্ষ্য করে আবারও মর্টার হামলা চালিয়েছে তুরস্ক।

সোমবার, কিরকুক প্রদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে আইএসের অবস্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় ইরাকী বিমান বাহিনীর এফ ১৬ বোমারু বিমান। এতে, আইএসের অন্তত অর্ধশত জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে নিরাপত্তা সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম। এসব হামলায় আইএসের অন্তত ৪টি সদর দফতর পুরোপুরি ধ্বংস হয়েছে বলেও জানানো হয়।

কিরকুক ছাড়াও, এদিন আনবার প্রদেশের রামাদি শহরের পূর্বাঞ্চলে আইএস-এর অবস্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট। এতে, জঙ্গিগোষ্ঠিটির অন্তত ১০ সদস্য নিহত হয় বলে ইরাকের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়। এছাড়াও, সোমবার বাগদাদসহ ইরাকের আরও অন্তত ১০টি শহরে আইএসের অবস্থান লক্ষ্য করে ১২ দফা বিমান হামলা চালায় মার্কিন জোট।

এদিকে, সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতির মধ্যেই দেশটির আলেপ্পো প্রদেশের উত্তরাঞ্চলে সিরীয় কুর্দি যোদ্ধাদের ওপর মর্টার হামলা অব্যাহত রেখেছে তুর্কি বাহিনী। হামলার কথা উল্লেখ করে সিরিয়ায় সশস্ত্র কুর্দি সংগঠন ওয়াইপিজি জানায়, সোমবার তাল রিফাত শহরে চালানো ওই মর্টার হামলায় বেশ কয়েকজন কুর্দি যোদ্ধা আহত হয়েছেন। এর আগে, গত সপ্তাহে তুরস্কের বিরুদ্ধে সিরিয়ার আলেপ্পো এবং ইদলিব প্রদেশে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনে রাশিয়া।

এরই মধ্যে সিরিয়ায় অবরুদ্ধ অঞ্চলগুলোতে মানবেতর জীবন-যাপন করা স্থানীয় বাসিন্দাদের জীবন বাঁচাতে রুশ সেনাবাহিনীর সহায়তায় বিমান থেকে ত্রাণ সরবরাহ শুরু করেছে দেশটির সরকার। এছাড়াও, সিরিয়ার যুদ্ধ বিধ্বস্ত অঞ্চলগুলোতে ত্রাণ সরবরাহ জোরদার করতে সেখানকার রুশ সামরিক ঘাঁটিগুলোতে ত্রাণ-সংস্থাগুলোর প্রবেশাধিকার উন্মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘সিরিয়ার হামা, হোমস, লাতাকিয়া, দেরিয়া, দেইর আল জোর, আলেপ্পো এবং দামেস্কের স্থানীয়দের মাঝে আমরা এরইমধ্যে ৬২০ টনেরও বেশি ত্রাণসামগ্রী ও ওষুধ পৌঁছে দিয়েছি। এসব শহরে যাতে ত্রাণ সরবরাহ অব্যাহত থাকে সে লক্ষ্যে যা কিছু করণীয় তার প্রায় সবকিছুই করছি আমরা।’

এদিকে, যুদ্ধবিরতি পরিস্থিতি অনেকাংশে স্থিতিশীলতা লাভ করার সুযোগে সিরিয়ার বিভিন্ন স্থানে আবারও শুরু হয়েছে নিরস্ত্র গণ-আন্দোলন। সোমবার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব শহরের রাস্তায় আসাদবিরোধী বিক্ষোভ করেছে শত শত স্থানীয় বাসিন্দা। এসময়, প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পদত্যাগ দাবি করে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেয় বিক্ষোভকারীরা।

http://www.anandalokfoundation.com/