বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
বেনাপোল রজনী ক্লিনিকে দায়িত্ব অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু চীনের পণ্য খারাপ ও নিম্নমানের, মুখ ফিরিয়ে নিতে চায় পুরো বিশ্ব শাকিব একাই দু’জন ক্রিকেটারের সমান ফুলবাড়ীতে যুবলীগ কর্মী শহীদ নূর হোসেনকে কূটুক্তিকারীর শাস্তির দাবিতে  বিক্ষোভ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে রাষ্ট্রপতির বাণী অবহেলিত মানুষের কাছে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দিতে প্রতিটি ইউনিয়নে দুটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে -ডা: মুশফিক নবীগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের নামে অতিরিক্ত ফি আদায় ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে সাড়ে ৭’শ কৃষক পেলেন প্রনোদনা বগুড়ায় বায়োমেট্টিক হাজিরা মেশিন না কিনেই ভাউচার

ভোলানন্দ গিরি ট্রাস্টের বেদখলীয় সম্পত্তি উদ্ধার

ভোলানন্দগিরি আশ্রম

রাজধানীর টিকাটুলীর ১২ কেএম দাস লেনে অবস্থিত শ্রীশ্রী ভোলানন্দ গিরি আশ্রমের তিন বিঘারও বেশি  দেবোত্তর সম্পত্তির অনেকাংশ প্রভাবশালীদের দখল থেকে উদ্ধার হল।

আজ ২ নভেম্বর শনিবার সকালে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী দেয়াল ভেঙ্গে দখল নেয় ভোলানন্দ গিরি আশ্রম ও ট্রাস্ট।

ভোলানন্দ গিরি আশ্রম ও ট্রাস্টের কর্মকর্তারা জানান, স্বাধীনতার বেশ কয়েক বছর আগেই নিজের জীবোদ্দশায় ট্রাস্ট করে ওই জমি দান করেন জিসি দেব। তবে তিনি শর্ত দেন, সেখানে যক্ষ্মা রোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি হাসপাতাল বানাতে হবে। সে অনুযায়ী জমির একাংশে এনটিআরএস (ন্যাশনাল টিউবারক্লোসিস রিহ্যাবিলিটেশন সোসাইটি) দাতব্য চিকিৎসালয় নামের একটি হাসপাতাল গড়ে তোলা হয়। যার তত্ত্বাবধায়ক নিযুক্ত করা হয় বিশিষ্ট চিকিৎসক (পরবর্তী সময়ে জাতীয় অধ্যাপক) নুরুল ইসলামকে। পাকিস্তান সরকারের বরাদ্দ দেওয়া ৫০ হাজার টাকায় সেখানে একটি একতলা ভবনও তৈরি করা হয়। তৎকালীন পাকিস্তান প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান ১৯৬৩ সালে হাসপাতালটির উদ্বোধন করেন।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের কালরাতে জিসি দেব নিহত হন। এরপর দৃশ্যপট দ্রুত পাল্টে যায়। নব্বইয়ের দশকে অধ্যাপক নুরুল ইসলাম হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্ব দেন আরেক বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. গিয়াস উদ্দিনকে।

অভিযোগে প্রকাশ, ২০০০ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের সময় ডা. গিয়াস উদ্দিনকে সরিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ সমর্থিত ওয়ার্ড কমিশনার (সাবেক ৭৫ নম্বর ওয়ার্ড) ময়নুল হক মঞ্জু নিজেই এর নিয়ন্ত্রক হয়ে যান। ২০০০ সালের দিকে তৎকালীন স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার ময়নুল হক মঞ্জু ওই জায়গার নিয়ন্ত্রণ নেন। তিনি লিজ নেওয়ার জাল দলিল দেখিয়ে স্পেস কনস্ট্রাকশন নামের একটি ডেভেলপার কম্পানির সঙ্গে অ্যাপার্টমেন্ট ভবন তৈরির চুক্তি করেন।

দুদকের অনুসন্ধানে এসব অনিয়ম-দুর্নীতি বেরিয়ে এলে কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সংশ্লিষ্টদের নামে মামলা দায়ের করা হয় এবং ভোলানন্দ গিরি আশ্রম ও ট্রাস্টের পক্ষে রায় ঘোষণা হয়।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 News Time Media Ltd.
IT & Technical Support: BiswaJit