মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০২:০২ অপরাহ্ন


ছাতকে মামুনুল হকের অনুসারীদের বিক্ষোভ, থানায় হামলা-ভাংচুর, আটক ৯

https://thenewse.com/wp-content/uploads/Police-station-attack.jpg

ছাতক প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহা সচিব মাওলানা মামুনুল হককে স্ব-স্ত্রীক আটকের ঘটনায় ছাতকে বিক্ষোভ মিছিল করেছে মামুনুল হকের অনুসারীরা। একপর্যায়ে উত্তেজিত সমর্থকরা লাঠি-সোটা নিয়ে থানায় হামলা চালায়। এসময় গোটা শহরজুড়ে থমথমে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। মুহুর্তের মধ্যে শহরের সকল দোকানপাঠ ও বিপনীবিতান বন্ধ হয়ে যায়। শহরে আসা লোকজন দিক-বেদিক ছুটাছটি করতে থাকে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে। শনিবার রাত প্রায় ৯টায় ছাতক শহরে এ ঘটনা ঘটে। হামলার ঘটনায় ৫পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ১০ব্যক্তি আহত হয়।

থানার গোলঘরসহ আরো ৪টি দোকানকোটা ভাংচুর করে বিক্ষোভকারীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ দেড়শতাধিক রাবার বুলেট ও টিআর সেল নিক্ষপ করে। হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ৯জনকে আটক করেছে। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী, ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান, সিনিয়র এএসপি ছাতক সার্কেল বিল্লাল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। শহরে মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হেফাজতের কেন্দ্রিয় নেতা মাওলানা মামুনুল হক রিসোর্টে আটকের খবরে তার অনসারীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। সন্ধ্যায় বিভিন্ন এলাকা থেকে খন্ড-খন্ড বিক্ষোভ মিছিল শহরের আসতে থাকে। লাঠি-সোঠা নিয়ে শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে বিক্ষোভ প্রদর্শন করার সময় মিছিলকারীরা ট্রাফিক পয়েন্টে দায়িত্বরত পুলিশকে ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে কর্মরত পুলিশ পয়েন্ট সংলগ্ন একটি দোকানে আশ্রয় নেয়। এসময় মিছিলকারীরা ওই দোকানে আশ্রয় নেয়া পুলিশের উপর হামলার উদ্দেশ্যে জমির উদ্দিনের আল আমিন ষ্টোর, বিশ্বজিত ঘোষের রাধারানী এন্টারপ্রাইজ, রতনমনি ঘোষের সুশিলা ষ্টোর ও রাজন ঘোষের এনআর ফার্মায় হামলা ও ভাংচুর চালায়। পরে বিক্ষোভকারীরা মিছিল সহকারে থানায় হামলা চালায়।

হামলাকারীরা থানা পুলিশকে লক্ষ্য করে বৃষ্টির মতো ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে গেলে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিআরসেল ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। পুলিশ সূত্র মতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে তারা ১০৮ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ২৬ রাউন্ড টিআরসেল নিক্ষেপ করেছে। বিক্ষোভকারিরা থানার গোলঘর ভাংচুরসহ পুলিশ সদস্য রাকিব, দিলসাদ, রবিউল আলম, সাইদুল ও সুবল দাস, পথচারী জুয়েল, সুজন মিয়া, দোকান কর্মচারী আলী আহমদসহ অন্তত ১০ব্যক্তি আহত হয়। আহতদের ছাতক হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদিকে, হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জয়নাল আবেদীন (২৮), রাজন আহমদ (২৬), একরাম হোসেন (২২), সামছুদ্দিন (২৩), সুমন আহমদ (২০), আলী হোসেন (২৮), মোস্তাফিজুর রহমান ফাহিম (১৯), জনি আহমদ (১৯) ও আবুল হোসেন (৩০)কে আটক করে পুলিশ।

এব্যাপারে হেফাজত ইসলামের উপজেলা আমীর মাওলানা আব্দুল হান্নান জানান, এ হামলার ঘটনার সাথে হেফাজতের কোন সম্পৃক্ততা নেই। ছাতক থানার ওসি শেখ নাজিম উদ্দিন ৯জন আটকের বিষয়টি স্বীকার করে জানান, বিনা উসকানীতে আকস্মিক পুলিশের উপর হামলা করেছে মামুনুল হকের সমর্থকরা। ঘটনার সময় থানার অধিকাংশ পুলিশ কর্মকর্তা গোবিন্দগঞ্জে খেলাফত মজলিশের কেন্দ্রিয় আমির মাওলানা শফিক উদ্দিনের যানাজায় নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছিল। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

SHARE THIS:

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দ্যা নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
     12
17181920212223
24252627282930
       
  12345
2728     
       
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit