শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত উজবেকিস্তানের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ বেনাপোল সীমান্তে মাদক, স্বর্ণসহ ১২০ কোটি টাকার চোরাচালানপণ্য আটক স্ত্রীর কথায় মাকে মাথা ফাটিয়ে দিল ছেলে পাইকগাছায় সপ্তদ্বীপা সাহিত্য পরিষদের কমিটি গঠন কালীগঞ্জে ”প্রাণের ঝিনাইদহের” পক্ষ থেকে এতিম ছিন্নমূলদের মাঝে গরম কাপড় বিতরন রাত পোহালেই শৈলকুপা পৌরসভায় ইভিএমে ভোট বিজিবি মোতায়েন আলেম-উলেমারা সমাজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক -গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ত্যাগী নেতাকর্মীদের দলে মূল্যায়ন করতে হবে -তথ্যমন্ত্রী গৌরনদীতে তিন হাজার মিটার অবৈধ জাল জব্দ শনিবারে বোয়ালমারী পৌরসভা নির্বাচন: কেন্দ্রে পাঠানো হচ্ছে নির্বাচন সামগ্রী

সালথায় ফের সংঘর্ষে আহত-৪৫, বাড়িঘর ভাঙচুর, পুলিশের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেট নিক্ষেপ

পুলিশের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেট

আবু নাসের হুসাইন, সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে ফরিদপুরের সালথা উপজেলায়। বৃহস্পতিবার বিকাল থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত কয়েক দফা সংঘর্ষ, হামলা পাল্টা হামলা ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা চলমান থাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের কুমারপট্টি ও মাঝারদিয়া গ্রাম। খবর পেয়ে পুলিশ উভয় গ্রামের ঘটনাস্থলে গিয়ে শর্টগানের ফাঁকা গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেট ছুঁড়ে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আনে।

ঈুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে এলাকার প্রভাব বিস্তার ও গ্রাম্যবিরোধের জেরধরে কুমারপট্টি গ্রামে এসকেন মাতুব্বরের সমর্থকদের সাথে ওমর মাতুব্বরের সমর্থকদের টানা দুই ঘন্টা সংঘর্ষে ছয় পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়। এ ঘটনার জেরধরে বিকালে পার্শ্ববর্তী মাঝারদিয়া গ্রামে ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাহিদুজ্জামান সাহিদের সমর্থকদের সাথে বর্তমান চেয়ারম্যান হাবিবুরর রহমান হামিদের সমর্থকদের মধ্যে ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।এতে আরো অন্তত ৪৫ জন আহত হয়। মাঝারদিয়া শুক্রবার সকালেও উভয় পক্ষের সমর্থকরা আবারো সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পৃথক এসব সংঘর্ষে ঘটনায় পুলিশসহ আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে শুক্রবার সকালে কুমারপট্টি গ্রামে আবারো কয়েকটি বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

মাঝারদিয়ার ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হামিদের ছেলে ফারুক হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে কুমারপট্টি গ্রামের সংঘর্ষে সাবেক চেয়ারম্যান সাহিদের সমর্থকরা অংশ নেয়। সংঘর্ষ শেষে সেখান থেকে ফিরে গ্রামে এসে আমাদের সমর্থক হাজী আতিকুর রহমানকে মারধর করে। এনিয়ে বিকালে সংঘর্ষ হয়। শুক্রবার সকালে আমাদের আরেক সমর্থক মিজান শেখ পেঁয়াজের হালি চারা বিক্রি করতে গেলে মাঝারদিয়া বাজারে তাকেও মারধর করে সাহিদের সমর্থকরা। এনিয়েই ফের সংঘর্ষ শুরু হয়।

তবে এসব অভিযোগ অস্বকীর করে মাঝারদিয়ার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাহিদুজ্জামান সাহিদ বলেন, কুমারপট্টি গ্রামের সংঘর্ষ শেষে হামিদ চেয়ারম্যানের সমর্থকরা আমাদের সমর্থক জিনায়েত মোল্যার বাড়িঘর ভাঙচুর করে এবং আমাদের সমর্থকদের ধাওয়া দেয়। এরপর থেকে মুলত দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। আমি এলাকা শান্ত রাখার জন্য সব সময় পুলিশের সাথে যোগাযোগ রাখছি।

সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ আলী জিন্নাহ বলেন, বৃহস্পতিবার বিকালে মাঝারদিয়া গ্রামের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আনতে ৫৬ রাউন্ড শর্টগানের গুলি, ১৪টি টিয়ারসেল ও ৩টি সাউন্ড গ্রেনেট ছুঁড়া করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ২৪ জনের নাম উল্লেখ্য করে অজ্ঞাত ২৫০ জনের নামে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। এরআগে ১৮ রাউন্ড শর্টগানের ফাঁকা গুলি ও ২টি সাউন্ড গ্রেনেট ছুঁড়ে কুমারপট্টি গ্রামের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ সময় ৬ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়।

SHARE THIS:

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দ্যা নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
      1
16171819202122
23242526272829
3031     
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit