শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানসহ বাকিদের জামিন নামঞ্জুর করে ১৪ দিন জেলে থাকার নির্দেশ

    ডেস্ক
    October 8, 2021 12:07 pm
    Link Copied!

     শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান, মুনমুনসহ অন্য অভিযুক্তদের জামিন নামঞ্জুর  করে ১৪ দিনের জেলে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

    জামিনের জন্য তাদের এবার মাদকসংক্রান্ত বিশেষ আদালত এনডিপিএসে যেতে হবে। আরিয়ানের জামিনের শুনানি আগামীকাল বেলা ১১টা নাগাদ হবে পরিবারের কারও সঙ্গে তিনি দেখা করতে পারবেন না। তবে এনসিবির কোনো কর্মকর্তা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবেন না।

    জানা গেছে, আরিয়ান, মুনমুন আর আরবাজের রিমান্ড ১১ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানোর জন্য আদালতের কাছে আবেদন করেছিল এনসিবি। আরিয়ান আর মাদক কাণ্ডের অন্যতম পান্ডা অচিত কুমারকে মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় এনসিবি।

    আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডের প্রশ্ন, আরিয়ানকে দুই রাত ধরে এনসিবি কোনো জিজ্ঞাসাবাদ করেনি, তাহলে রিমান্ড কেন চাই?

    সতীশ মানশিন্ডে আদলতকে জানিয়েছে, ‘আরিয়ানকে অতিথি হিসেবে পার্টিতে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল। আরিয়ানের ব্যাগ তল্লাশি করেছিল এনসিবি। ওর ব্যাগে মাদক পাওয়া যায়নি। রেভ পার্টির সঙ্গে আরিয়ানের কোনো সম্পর্ক নেই। আর ওর গ্রেপ্তারি অর্থহীন। আরিয়ানের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই। তবে তদন্তের ক্ষেত্রে সব রকম সাহায্য করবেন আরিয়ান।’

    এনসিবি আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিল। সতীশ মানশিন্ডের বক্তব্য এই চ্যাট ফুটবল সংক্রান্ত। এখানে মাদকের কথা বলা হয়নি।

    খবর ছিল যে আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে আদালতের কাছে আরিয়ানের বিচারিক হেফাজতের আবেদন জানিয়েছেন। কারণ, এতে জামিন পেতে সুবিধা। এদিকে মুনমুনের আইনজীবী আদালতে বলেছেন যে মুনমুনের জন্য একটা কেবিন বুক করা হয়েছিল। কেবিন থেকে ৫ গ্রাম মাদক পাওয়া গেছে। তদন্তে মুনমুনের বিরুদ্ধে কিছু পাওয়া যায়নি বলে আইনজীবী জানিয়েছেন।

    শাহরুখ-পুত্র জানিয়েছেন, অতীতে কখনও তিনি নেশা করেননি। অনুশোচনা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, ভবিষ্যতেও এমন কোনও কাজ আর তিনি করবেন না। কিন্তু জেরা করেই থেমে যাননি এনসিবি-র কর্মকর্তারা। তদন্তের গভীরে গিয়ে জানা গিয়েছে, বিগত চার বছর ধরে মাদক নিতেন আরিয়ান। কিন্তু স্বস্তি পেলেন না শাহরুখ পুত্র।