ঢাকা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শক্তিশালী জাতি গঠনে শিক্ষকদের দক্ষ করে তুলছে ব্রিটিশ কাউন্সিল

ডেস্ক
September 22, 2022 5:10 pm
Link Copied!

ব্রিটিশ কাউন্সিল ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ‘ট্রেইনিং অব মাস্টার ট্রেইনার্স ইন ইংলিশ’ (টিএমটিই) প্রকল্পের অধীনে প্রাথমিক শিক্ষকদের চতুর্থ দলের গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠান দেশজুড়ে সম্প্রতি ১০টি প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে (পিটিআই) অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকা পিটিআইয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপপরিচালক (প্রশিক্ষণ বিভাগ) মো. মাহবুবুর রহমান বিল্লাহ; ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের পরিচালক (শিক্ষা) ডেভিড মেনার্ড এবং ঢাকা বিভাগের প্রাথমিক শিক্ষা’র বিভাগীয় উপপরিচালক মীর্জা মো. হাসান খসরু। ঢাকার পাশাপাশি গাজীপুর, শেরপুর, যশোর, বরিশাল, গোপালগঞ্জ, রংপুর, রাজশাহী, দিনাজপুর এবং মৌলভীবাজার পিটিআইয়ে অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়।

টিএমটিই প্রকল্পের এ ধাপের অধীনে ৪২৯ জন প্রাথমিক শিক্ষকের একটি দলকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল, যেন তারা প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য আরও উপভোগ্য ও কার্যকরভাবে ইংরেজি ভাষা শেখানোর ক্ষেত্রে দক্ষতা ও যোগ্যতা অর্জন করতে পারেন। এটি ১৪ সপ্তাহের একটি কর্মসূচি ছিল।

এ নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপপরিচালক (প্রশিক্ষণ বিভাগ) মো. মাহবুবুর রহমান বিল্লাহ বলেন, “আমরা একটি জ্ঞান-ভিত্তিক সমাজ তৈরি করতে চাই; এ পথচলায় আমাদের সবাইকে প্রত্যাশিত ভূমিকা রাখতে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করতে হবে। আমি প্রত্যাশা করছি, আপনারা এ প্রশিক্ষণ থেকে প্রাপ্ত জ্ঞান আপনাদের নিজস্ব শিক্ষা প্রদানের পদ্ধতি ও ক্লাসরুম ম্যানেজমেন্ট স্কিলের (শ্রেণিকক্ষ ব্যবস্থাপনা দক্ষতা) মাধ্যমে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে কার্যকরভাবে প্রয়োগ করতে পারবেন। আপনারা সবাই ইতিবাচক মনোভঙ্গি নিয়ে আজকের অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফিরবেন বলে আমি আশাবাদী।”

অনুষ্ঠানে ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের পরিচালক (শিক্ষা) ডেভিড মেনার্ড বলেন, “ইংরেজি ভাষা জানা যে খুব গুরুত্বপূর্ণ এ প্রশিক্ষণ প্রোগ্রামের মাধ্যমে আমরা সবাইকে এ বিষয়টি  বোঝানোর চেষ্টা করেছি। আপনারা যে এ প্রোগ্রামের মাধ্যমে ইংরেজি শিখতে পেরেছেন তাতে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। তবে, এক্ষেত্রে আপনাদের শেখানোর পদ্ধতি ও শিশুদের সম্পৃক্ততাও এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ। ১৫-২০ বছর আগেও স্কুলগুলোতে ইংরেজি শেখার পদ্ধতি শিক্ষক-কেন্দ্রিক ছিলো, যেখানে শিক্ষার্থীরা বসে বসে শিক্ষকদের কথা শুনতো এবং তা খাতায় লিখতো। আমি প্রত্যাশা করছি, আপনারা এ প্রশিক্ষণ প্রোগ্রামের মাধ্যমে যে নিত্য নতুন পদ্ধতি, কৌশল ও পাঠদান প্রক্রিয়া রপ্ত করেছেন তা শ্রেণিকক্ষে প্রয়োগ করে শিক্ষার্থীদের ইংরেজি ভাষা শেখায় সম্পৃক্ত করতে পারবেন। যদি তারা এ প্রক্রিয়ায় সক্রিয়ভাবে সম্পৃক্ত হতে পারে তবেই তারা আপনাদের শেখানো বিষয়টি মনে রাখতে পারবে, তারা এ বিষয়টি নিয়ে চিন্তা এবং আত্মস্থ করতে পারবে। গত ১৪ সপ্তাহ এ প্রোগ্রামে অংশ নিয়ে তা সফলভাবে শেষ করার জন্য আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। আমি জানি, ১৪ সপ্তাহ অনেক দীর্ঘসময় এবং আপনারা এ সময়ে অনেক পরিশ্রম করেছেন।”

এ নিয়ে ঢাকা বিভাগের প্রাথমিক শিক্ষা’র বিভাগীয় উপপরিচালক মীর্জা মো. হাসান খসরু বলেন, “যদি আমাদের সন্তানরা স্কুলে ভালোভাবে ইংরেজি ভাষা শিখতে পারে, তবেই এ প্রোগ্রামটি সফল হবে বলে আমি মনে করি। আমি প্রত্যাশা করবো, আপনারা নিজ নিজ স্কুলে গিয়ে এ প্রোগ্রাম থেকে প্রাপ্ত জ্ঞান আপনাদের সহকর্মীদের মাঝে ছড়িয়ে দিবেন; যাতে করে আপনাদের কাছ থেকে শিক্ষার্থীরা আরো উন্নত উপায়ে শিখতে পারেন।”

সরকারের ২০১৮ সালে করা ‘প্রাইমারি এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম ৪’ (পিইডিপি৪) এর অংশ হিসেবে ‘ইংলিশ ফর প্রাইমারি টিচার্স’ (ইপিটি) ট্রেনিং প্রোগ্রামটির দায়িত্ব পায় ব্রিটিশ কাউন্সিল। ইংরেজি শিক্ষার ক্ষেত্রে শিশুদের দক্ষতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ এ প্রকল্পটির দ্রুত অনুমোদন দেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রকল্পটি ২০৩০ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার চতুর্থটি অর্থাৎ ‘মানসম্মত শিক্ষা’র সাথে সম্পর্কিত, যেখানে ব্রিটিশ কাউন্সিল গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার। জাতীয় শিক্ষা সংস্কার  পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে পরের বছর টিএমটিই প্রকল্পে ৪৭ কোটি টাকার অনুমোদন দেয় সরকার। কোভিডের কারণে বিলম্বিত হওয়ায় টিএমটিই প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিকভাবে ২০২১ এর জানুয়ারিতে শুরু করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

চট্টগ্রাম, কুমিল্লা ও জয়পুরহাট সহ দেশজুড়ে প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে (পিটিআই) ২৫ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক শিক্ষকদের পঞ্চম দলের প্রশিক্ষণ শুরু হবে।

একটি প্রশিক্ষণ প্রকল্প হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে টিএমটিই, যেখানে সারা দেশের পিটিআইগুলোর মধ্যে সমন্বয় সাধন করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে পরিচালিত টিএমটিই প্রকল্পটির উদ্দেশ্য হচ্ছে- প্রাথমিক-স্তরের ইংরেজি শিক্ষকদের দক্ষতাকে আরও উন্নত করা এবং হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষককে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা দেয়ার ক্ষেত্রে প্রশিক্ষক হিসেবে গড়ে তোলা।

http://www.anandalokfoundation.com/