প্রতারণা মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামীর নৌকার মনোনয়ন লাভ॥ বাদীর বিষ্ময়

    অনলাইন ডেস্ক
    October 26, 2021 7:31 pm
    Link Copied!

    নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ)প্রতিনিধি ॥ ২০ লাখ টাকা প্রতারণা মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামী হাবিবুর রহমান হাবিব হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন। এই খবর পেয়ে বিষ্ময় প্রকাশ করেছেন মামলার বাদী ব্রাক্ষণবাড়ীয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার চরচারতলা গ্রামের মৃত হাজী আবুল খায়েরের ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম। 
    সাইফুল ইসলাম বলেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সোহা এন্টারপ্রাইজ এর কাছে নবীগঞ্জের বিবিয়ানা বিদ্যুৎ প্ল্যান্টের পুরাতন কন্টেইনার বিক্রির জন্য সাথে হাবিবুর রহমান হাবিব চুক্তি করে এবং সেখানে টেন্ডার দেয়ার জন্য ২০ লাখ টাকা আনেন। নিজেকে এমপির লোক এবং বড় নেতা হিসাবে পরিচয় দেয়ায় সরল বিশ্বাসে আমি তাকে টাকা দেই। কিন্তু পরে সে কোন মালও দেয়নি এবং টাকাও ফেরত দেয়নি। এক পর্যায়ে সে লেনদের অস্বীকার করে। আমি নিরুপায় হয়ে হবিগঞ্জের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দকে বিষয়টি জানালে তারও কোন প্রতিকার দিতে পারেননি। পরে আমি ব্রাক্ষণবাড়ীয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রতারণার মামলা দায়ের করি। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য আশুগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনার সত্যতা পেয়ে প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে বিজ্ঞ আদালত হাবিবুর রহমান হাবিবের নামে সমন ইস্যু করলেও সে আদালতে হাজির না হলে বিজ্ঞ আদালতে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা ইস্যু করেন’।
    তিনি অভিযোগ করে বলেন, হাবিবুর রহমান হাবিবের বিরুদ্ধে  নবীগঞ্জ থানায় পরোয়াান থাকার পরও ক্ষমতার দাফটে তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। এরই মাঝে আমরা জানতে পেরেছি সে নৌকা প্রতীক বরাদ্ধ পেয়েছে। এই খবর আমাকে হতবাক করেছে।  একজন পরোয়ানাভুক্ত আসামী যদি মনোনয়ন পায় এবং প্রকাশ্যে নির্বাচন করে তাহলে সাধারন মানুষ কোথায় বিচার পাবে? আমি শুনেছি হাবিবের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলাসহ আরও প্রতারণার মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
    এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী বলেন, গ্রেফতারী পরোয়ানার বিষয়টি আমারা আগে অবগত হলে আমরা প্রার্থীর তালিকা থেকে হাবিবের নাম বাদ দিতাম।
    নবীগঞ্জ থানার ওসি ডালিম আহমেদ বলেন, গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
    হাবিবুর রহমান হাবিব এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।