বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
মুজিববর্ষে রোপিত ১ কোটি বৃক্ষের প্রতিটি স্মারক বৃক্ষকে যথাযথভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে -পরিবেশমন্ত্রী করোনাভাইরাসে আরও ৩৩ জনের মৃত্যু ও শনাক্ত ৩৫৩৩ ইসরাফিল আলম এমপির সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনায় কোরানখানি ও মিলাদ মাহফিল বেনাপোলে ফেনসিডিল সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক নিজের ছাত্রকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে শিক্ষিকাকে আটক করেছে পুলিশ খুন হয়েছে পাঠাওয়ের সহপ্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ স্বামী ও অসুস্থ সন্তান ফেলে ফেসবুকে পরিচয় বখাটের সাথে পালিয়ে ধর্মান্তরিত শিক্ষিকা করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য খাতে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে সরকারের নৌকায় পালিয়ে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম বগুড়া-১ আসনে নৌকা প্রার্থী সাহাদারা মান্নানের জয়

পত্নীতলায় হতাশ কৃষক

হতাশ কৃষক

মো.আবু সাঈদ, পত্নীতলা (নওগাঁ): নতুন বোরো ধান ঘরে তোলার আনন্দে যখন কৃষক-কৃষাণীর দুচোখে আনন্দে ভরপুর থাকার কথা সে সময়ে চরম বিষন্নতা আর অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে কৃষক ও চাষীদের ঘরে ঘরে। আগামী দিনগুলি কিভাবে পাড়ি দিয়ে তাঁরা নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখবেন সে চিন্তাই এখন কৃষকের ঘরে ঘরে। চলতি বোরো ধান কাটার মৌসুমে চরম শ্রমিক সংকট, শ্রমিকের মাত্রাতিরিক্ত মজুরী, বাজারে ধানের দামের নিম্নমুখীতা ও সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘূণী ঝড় ফণীর কারণে মাঠের ধান নুইয়ে পড়ে ধানের উৎপাদন কমে যাওয়ায় কৃষকদের এমন পরিস্থিতিতে পড়তে হয়েছে।

সরেজমিনে পত্নীতলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে তাঁরা চরম শ্রমিক সংকটে ভুগছেন। রমজান মাসে ধান কাটা পড়ায় প্রতি বছরের মতো চলতি বছরে এলাকায় বাহির হতে শ্রমিক কম এসেছে। মাঠের সকল ধান একই সাথে কাটার উপযোগী হওয়ায় কৃষকরা শ্রমিক নিয়োগে প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হয়েছে। আর এ সুযোগ কাজে লাগিয়েছে স্থানীয় শ্রমিকরা। শ্রমিক ঘাটতির সুযোগ নিয়ে তাঁরা বাড়িয়ে দিয়েছে মজুরী। গত বছর চুক্তি ভিত্তিতে বোরো ধান কাটার জন্য যেখানে শ্রমিকরা মণপ্রতি ৬-৭কেজি ধান পেত এ বছর তাঁরা মণপ্রতি ১৫-১৮কেজি পর্যন্ত ধান প্রদানে বাধ্য করছে কৃষকদের। এদিকে বোঙ্গা (ধান মাড়াই মেশিন) দিয়ে ধান মাড়াই করার জন্য কৃষকদের মণপ্রতি আরো কেজি ধান গুনতে হচ্ছে। যে সকল কৃষক জমি বর্গা নিয়ে চাষ করেছেন তাদের জমির মালিককে দিতে হতে বিঘাপ্রতি ৭মণ ধান। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘূর্ণী ঝড় ফণীর প্রভাবে মাঠের ধান নুইয়ে পড়ায় কৃষকরা আশানুরুপ ফসল ঘরে তুলতে পারেনি। সার্বিক দিক বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে মোটের উপর চলতি মৌসুমে বোরো ধান নিয়ে লোকসানের মধ্যে রয়েছে কৃষকরা। যা তাদের পরিবারকে ফেলে দিয়েছে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে।

এ বিষয়ে দোচাই গ্রামের কৃষক বিপ্লব জানান, তিনি ১০ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন। এক বিঘা জমিতে সব্বোর্চ ধান হয়েছে ২৪ থেকে ২৬মণ। ধান কাটার জন্য প্রতি মণের বিপরীতে শ্রমিকরা নিচ্ছেন ১২-১৫ কেজি ধান। জমির মালিককে দিতে হচ্ছে বিঘাপ্রতি ৭মণ ধান ও বোঙ্গা মালিককে দিতে হচ্ছে মণপ্রতি কেজি ধান। সব দেনা মিটিয়ে বর্গাচাষীদের হাতে থাকছে ৩-৬মণ ধান। বাজারে ভালো মানের ধান বিক্রি হচ্ছে মণপ্রতি সব্বোর্চ ৬শত৫০ টাকা দরে। মোটা ধান বিক্রয় হচ্ছে মণপ্রতি ৫শত টাকায়। একবিঘা জমিতে বেরো চাষে খরচ হয়েছে প্রায় ৫হাজার টাকা। এই অবস্থায় তিনি কি করবেন সে নিয়ে চরম সংশয় প্রকাশ করেন। আগামীতে তিনি ধান চাষ আর করবেন কিনা সে নিয়েও সংশয়ের কথা জানান।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার প্রকাশ চন্দ্র এর সাথে কথা বললে তিনি শ্রমিক সংকটের কথা স্বীকার করে বলেন, ঘূর্ণী ঝড় ফণীর প্রভাবে ধানের উৎপাদন ব্যহত হওয়ার আশংকা কম। তবে বর্তমানে বাজারে ধানের দামে সংশয় প্রকাশ করে তিনি বলেন, এতে কৃষকরা ধান উৎপাদনে আগ্রহ হারাবে। চলতি মৌসুমে পত্নীতলায় ২০হাজার ৮শত হেক্টর জমিতে ৮১হাজার ৭শত ১০ মেট্রিক টন বোরো উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন এই লক্ষ্যমাত্রা পুরণে আমরা আশাবাদী।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

পুরাতন সংবাদ পডুন

SatSunMonTueWedThuFri
    123
18192021222324
25262728293031
       
   1234
       
282930    
       
      1
       
     12
       
2930     
       
    123
25262728   
       
      1
9101112131415
30      
  12345
6789101112
272829    
       
   1234
2627282930  
       
1234567
891011121314
22232425262728
293031    
       
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪-২০২০ || এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Support: BiswaJit
error: Content is protected !!