চৌমুহনীতে মন্দিরে হামলা, র‌্যাবরে অভিযানে গ্রেফতার-৬

    অনলাইন ডেস্ক
    October 20, 2021 3:12 pm
    Link Copied!

    নোয়াখালী প্রতিনিধি:  নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের চৌমুহনীতে সনাতন ধর্মালম্বীদের মন্দির, পূজা মন্ডপ ও বাড়ি ঘরে হামলার সাথে জড়িত থানার অভিযোগে ৬ জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-১১।

    গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নিজাম উদ্দিন (৩৫), মো: রাসেল (৩২), আবদুল মোতালেব (৪৭), শাহাদাত হোসেন (৩৪), গোলাম কিবরিয়া (৩২), আনোয়ারুল আজিম (৪০)।   তাদের প্রত্যেকেই বেগমগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা।

    বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিশেষ ক্ষমতা আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এর আগে, গতকাল মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৪টা থেকে বেগমগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেররক গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১।

    সিপিসি র‌্যাব-১১ এর লক্ষীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার খন্দকার মো. শামীম হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুর ১টায় এ তথ্য জানানো হয়।

    প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে র‌্যাব-১১, সিপিসি-৩, লক্ষ্মীপুর এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জের চৌমুহনী কলেজ রোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সনাতন ধর্মালম্বীদের ইসকন পূজা মন্দিরে হামলার সাথে জড়িত আনোয়ারুল আজিম (৪০) আটক করে। সে সিসি টিভি ফুটেজ ও ভিডিও স্থীরচিত্রের মাধ্যমে সনাক্ত পূর্বক সনাতন ধর্মালম্বীদের বিভিন্ন মন্দিরে হামলা ঘটনায় রুজুকৃত মামলায় সন্দিগ্ধ আসামি হিসেবে তাকে গ্রেফতার করা হয়। একই দিন বিকেল পৌনে ৫টার দিকে আভিযানিক দল নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানাধীন চৌমুহনী এলাকায় অভিযান পরিচলনা করে সনাতন ধর্মালম্বীদের বিভিন্ন মন্দিরে হামলাকারী  মো. নিজাম উদ্দিন (৩২) মো.রাসেল (৩৬) আব্দুল মোতালেব ওরফে (৪৭) মো.সাহাদাত হোসাইন (৩৪) ও গোলাম কিবরিয়া ওরফে সুমনকে (৩০) গ্রেফতার করতে করে।   উল্লেখ্য, গ্রেফতারকৃত আসামিদের  সিসি টিভি ফুটেজ ও ভিডিও স্থীরচিত্রের মাধ্যমে সনাক্ত পূর্বক সনাতন ধর্মালম্বীদের বিভিন্ন মন্দিরে হামলা ঘটনায় রুজুকৃত মামলা সমূহে সন্দিগ্ধ আসামী হিসেবে গ্রেফতার করা হয়েছে।

    সিপিসি র‌্যাব-১১ এর লক্ষীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার খন্দকার মো. শামীম হোসেন আরো জানায়, পরে তাদের বেগমগঞ্জ থানায় দায়েরকৃত ৪ টি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে বলে জানান তিনি।