২১শে মে, ২০১৮ ইং | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:০৯
সর্বশেষ খবর
জুতায় খাবার পরিবেশন

জাপানি ও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীকে জুতায় খাবার পরিবেশন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ  খাবার টেবিলে বসে সস্ত্রীক ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। উল্টো দিকে অতিথি জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এবং তার স্ত্রী। তাদের সামনে সাজানো চারটি জুতা! যেগুলোতে আসলে পরিবেশন করা হয়েছে ডেজার্ট। খবর আনন্দবাজারের।

রোববার সগর্বে ওই ছবিটি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন ইসরায়েলের তারকা শেফ সেগেভ মোশে। আর তা দেখেই আঁতকে উঠেছেন জাপানের কূটনীতিকরা। প্রশ্ন উঠছে, জুতায় করে খাবার পরিবেশনের এই ভাবনা কী শৈল্পিক চমক, নাকি নিছকই মজা!

এক জাপানি কূটনীতিকের মতে, কোনো সংস্কৃতিতেই খাবার টেবিলে জুতা রাখাকে ভালো নজরে দেখা হয় না। ওই শেফ কী ভেবে এটা করেছেন, জানি না। বিষয়টা আদৌ মজার নয়। এতে প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলেই মনে করছি।

ঘটনাটি অবশ্য ২ মে’র অর্থাৎ গেলো বুধবার জেরুজালেমে দুই দেশের একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পর রাজকীয় ভোজের আয়োজন করা হয়েছিল। এটা ছিল ইসরায়েলে আবের দ্বিতীয় সফর। সেদিন রান্নার দায়িত্বে ছিলেন শেফ মোশে। একের পর এক তাক লাগানো খাবার পরিবেশন করে চমকে দিতে চেয়েছিলেন অতিথিদের। খাবারের শেষ অংশে দেশ-বিদেশের বাছাই করা চকলেট জুতায় ভরে পরিবেশনের ভাবনাটি তাই প্রথম থেকে গোপন রেখেছিলেন তিনি।

রোববার ওই অভিনব ডেজার্টের আরও একটি ছবি পোস্ট করেছেন মোশে। জানিয়েছেন, জুতাটি আসল নয়, ধাতুর তৈরি। ব্রিটিশ শিল্পী টম ডিক্সন সেটি তৈরি করেছেন। তবে সেই ভাবনা যতই অভিনব হোক না কেন, সমালোচনা পিছু ছাড়ছে না কিছুতেই।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইসরায়েলের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বলছেন, জাপানি সংস্কৃতিতে জুতাকে নিচু নজরেই দেখা হয়। তারা বাড়িতে, এমনকি অফিসেও জুতা পরেন না। জাপানের মানুষ তাই ঘটনাটিকে অপমানজনক বলে মনে করতেই পারেন।

ছবিটি ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়াতেও হইচই শুরু হয়েছে। কেউ কেউ বলছেন, জুতায় ডেজার্ট পরিবেশনের আগে অতিথিদের সংস্কৃতি নিয়ে একটু জ্ঞান বাড়ানো প্রয়োজন ছিল শেফের। কারও কারও সুর আরও কড়া। তাদের মতে, এর জন্য কোনো সংস্কৃতি জানার প্রয়োজন নেই। সাধারণ জ্ঞান থাকলেই হয়।

এদিকে জুতা বিতর্কে এখন মুখে কুলুপ এঁটে আছেন নেতানিয়াহু। তবে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে আমরা শ্রদ্ধা করি।

শেয়ার করুন
  • 4
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*