২১শে জুলাই, ২০১৮ ইং | ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:৩৩
সর্বশেষ খবর
সংস্কৃতি মন্ত্রী

সুস্থ্য সংস্কৃতি চর্চা ছাড়া প্রকৃত মানুষ হওয়া যায়না

উত্তম কুমার পাল হিমেল, নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এম.পি বলেছেন, সুস্থ্য সংস্কৃতি চর্চা ছাড়া প্রকৃত মানুষ হওয়া যায়না। ভবিষ্যত প্রজন্মকে শুধু নিজেদের জন্য তৈরী না করে দেশ ও জাতির কল্যাণে তৈরী করতে হলে লেখাপাড়ার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক চর্চা ও বেশি করে বই পড়ার প্রতি আগ্রহী করে তুলতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বহারা মানুষ তার চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই তাই তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে নিরলশ ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাই তার আমলে দেশের উন্নয়ন হওয়াটাই স্বাভাবিক। আমরা প্রত্যেকেই মানুষ হয়ে জন্মগ্রহন করি কিন্তু সবাই মনুষত্ব অর্জন করতে পারিনা। তাই মনুষত্ব অর্জনে সুস্থ্য সংস্কৃতি চর্চার কোন বিকল্প নেই।

তিনি আরো বলেন, প্রয়াত অর্থমন্ত্রী শাহ এস এম কিবরিয়া ও প্রয়াত মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজী শুধু সিলেটেরই নয় তারা দেশের সম্পদ ছিলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকার দেশের প্রতিটি উপজেলায় শিল্পকলা একাডেমী ভবন নির্মাণের প্রদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। অনেক উপজেলায় তা নির্মাণের কার্যত্রম চলছে এক্ষেত্রে নবীগঞ্জকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। তিনি গতকাল রবিবার দুপুরে নবীগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক সংগঠন আনন্দ নিকেতন এর ১৮ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এর আগে তিনি আনন্দ নিকেতন নিজস্ব ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামলীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদ খাঁন এমপি, হবিগঞ্জ-১ আসনের এমপি এম এ মুনিম চৌধুরী বাবু, জেলা পরিষদের প্রশাসক ডাঃ মুশফিক হোসেন চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের নারী এমপি কেয়া চৌধুরী, হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরী, এডিশনাল এসপি আ.স.ম সামছুল হক ভূইয়া, কবি ফরহাদ হোসেন পরাগ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, সংগঠনের উপদেষ্টা সাবেক মেয়র অধ্যাপক তোফাজ্জল ইসলাম চৌধুরী ও তাপস আচার্য প্রমুখ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, আনন্দ নিকেতনের সাবেক সভাপতি তনুজ রায়। এর আগে মন্ত্রী নবীগঞ্জ গনপাঠাগার পরিদর্শন করেন। পরে সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আনন্দ নিকেতন শিক্ষার্থীরা, সিলেটের নগরনাট, বাংলা গানেরদল বাউলা ও জলের গান পরিবেশনের কথা রয়েছে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.