২৩শে জুন, ২০১৮ ইং | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৪৭

‘আইনজীবীদের ভুলের কারণে শুরুতে ডিভিশন পাননি খালেদা’

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আইনজীবীদের ভুলের কারণে কারাগারে শুরুতে খালেদা জিয়া ডিভিশন পাননি বলে দাবি করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, উনার উকিলদের ভুলে উনি সাফার করবেন আর সেটার জন্য আমাকে সাফাই গাইতে হবে, আমি এটা করতে রাজি না।

তিনি আরও বলেন, উনার উকিলরা সেদিন কত চোখের জল ফেলতে হবে সে চিন্তা করতে করতে ডিভিশনের দরখাস্তও করেনি, সেই দোষ কী আমাদের? এটা তাদের দায়িত্ব ছিল। যেই মুহূর্তে দরখাস্ত দেয়া হয়েছে সেই মুহূর্ত থেকেই তাকে ডিভিশন দেয়া হয়েছে। এখানে সরকারের কোনো হাত নেই।

রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক উপ-কমিটির আয়োজনে ‘রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন এবং দুর্বৃত্ত ও দুর্নীতিমুক্ত রাজনীতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন।

সংগঠনের সদস্য সচিব ও আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক শ ম রেজাউল করিমের সঞ্চলায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সৈয়দ আমিরুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক ও একাত্তর টিভির প্রধান নির্বাহী মোজাম্মেল বাবু, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, সাংবাদিক স্বদেশ রায় প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কোনো সংগঠনের নেতা জেলে বা দেশের বাইরে গেলে অথবা মারা গেলে তখন দলের ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব আরেকজনকে দেয়া হয় উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, একজন পলাতক আসামিকে দলের দায়িত্ব দেয়া হলো, তিনি কী দেশে আছেন? এটা ওদের কালচার। নির্লজ্জ…।

তিনি বলেন, দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে জেলে যেতে হবে, বিষয়টি ২০১৬ সালে বিএনপি বুঝতে পেরেছিল বলেই গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সাজা হওয়ার এক সপ্তাহ আগেই উনারা গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন করেছেন। তার মানে ওই সময় তারা বুঝেছিলেন যে, উনাদের নেত্রী এবং কো-চেয়ারম্যান দুর্নীতির কারণে জেলে যেতে পারেন। সে কারণে তাড়াতাড়ি গঠনতন্ত্রের পরিবর্তন এনেছেন। ১৯৯৩ সালে দুই কোটি টাকার দুর্নীতি বর্তমানে ৩০০ কোটি টাকার সমান বলেও মন্তব্য করেন আইনমন্ত্রী।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.