২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং | ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | রাত ৮:০৯
যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি কার্যক্রম বন্ধ

যুক্তরাষ্ট্রে সব ধরনের সরকারি কার্যক্রম বন্ধ

নিউজ ডেস্ক(২০.০১.২০১৮)ঃ  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন একটি ব্যয় বাজেটের ব্যাপারে সিনেট একমত হতে ব্যর্থ হয়েছে। এর ফলে দেশটিতে বন্ধ হয়ে গেছে সব ধরনের সরকারি কার্যক্রম। খবর বিবিসির।

স্থানীয় সময় শুক্রবার মধ্যরাতে এ বিষয়ে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। তবে গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইস্যুতে রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেট সিনেটররা একমত হতে ব্যর্থ হন।

শেষ মুহূর্তে দ্বিদলীয় ওই বৈঠকে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ৬০ ভোট পড়েনি। আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকারি অফিসগুলোর অর্থায়নের বিষয়ে ওই বিলটি উত্থাপন করা হয়েছিল।

এর আগে ২০১৩ সালে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছিল। তখন অর্থাভাবে ১৬ দিন সরকারি কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই বিল নিয়ে হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভ ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে পক্ষে ২৩০ ভোট পড়ে আর বিপক্ষে ১৯৭। তবে সিনেটে ওই বিলটি পাসের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট পড়েনি।

তাই শুক্রবার মধ্যরাত থেকেই প্রয়োজনীয় অর্থ না পাওয়ায় বন্ধ হয়ে গেলো সরকারি অফিসগুলো।

এদিকে সরকারি অফিস বন্ধ হয়ে গেলেও প্রয়োজনীয় ও জরুরি সেবা কার্যক্রম যথারীতি চলবে। এর মধ্যে রয়েছে- জাতীয় নিরাপত্তা, ডাক, এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল, আবাসিক ও জরুরি মেডিকেল সেবা, দুর্যোগ সহায়তা, কারাগার, করারোপণ ও বিদ্যুৎ উৎপাদন। তবে বন্ধ হয়ে গেছে জাতীয় উদ্যানগুলো।

ক্ষমতা গ্রহণের এক বছরের মাথায় এসে ডেমোক্রেটদের কাছ থেকে বড় চাপের মুখে পড়লেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই পরীক্ষা তিনি কীভাবে উতরে যান সেটাই এখন দেখার বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*