১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৩৪
ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

কালীগঞ্জে ৯ নং বারবাজার ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি॥ ১৯ই জানুযারী’ ১৮ঃ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদকে মাদক ও বিষ্ফোরক মামলায় সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১০ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মাহাবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সর্বশেষ অনুষ্ঠিত দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক নিয়ে আবুল কালাম আজাদ উপজেলার ৯ নং বারোবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে জয়লাভ করেন। বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বারোবাজার ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ স¤পাদক।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ এর বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় দায়েরকৃত জি.আর মামলা নং-১৩৯/২০১৬ এরঅভিযোগপত্র নং-২০, গত ৩০/০১/২০১৭ তারিখে বিজ্ঞ আদালতে গৃহিত হওয়ায় এবং উক্ত ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক সংঘটিত অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিষদসহ জনস্বার্থের পরিপন্থি বিধায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ৩৪ উপধারা (১) অনুযায়ী উল্লিখিত ইউপি চেয়ারম্যানকে তাঁর স্বীয় পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) উত্তম কুমার রায় বলেন, বৃহ¯পতিবার (১৮ জানুয়ারি) প্রজ্ঞাপনের কপি হাতে পেয়েছি। হাতে পাওয়ার সাথে সাথেই ইউনিয়নের সচিবকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেছি। এখন থেকে ওই ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালন করবেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৭ অক্টোবর বৃহ¯পতিবার কালীগঞ্জ উপজেলার বারো বাজারের নিজ অফিস থেকে দুইটি তাজা বোমা, ১২০ বোতল ফেনসিডিল ও ২৫০ পিচ ইয়াবাসহ চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ ও তার বড় ভাই আব্দুস সালাম এবং তার সহযোগি উজ্জল হোসেন, সুমন হোসেন, ও ফরহাদ হোসেনকে আটক করে ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা। পরের দিন ২৮ অক্টোবর ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর ডিএডি জহুরুল ইসলাম বাদি হয়ে বারোবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদকে প্রধান আসামি করে মোট ৫ জনের নাম উল্লেখ করে মাদক ও বিস্ফোরক আইনে মামলাটি দায়ের করেন।

জি.আর মামলা নং- ১৩৯/২০১৬। এর ৪ দিন পর ২ নভেম্বর কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারে চেয়ারম্যানের বাড়িতে আরেকটি অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে ১ টি দেশীয় রিভলবার, ৪ টি শাটার গান, ৩ হাজার বোতল ফেনসিডিল ও ৫ শতপিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। অভিযানকালে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই সোহেল রানা, সোহান ও জামাল নামের অপর এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.