২৩শে জুন, ২০১৮ ইং | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৪৪
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

জাতিকে সংকটের দিকে ঠেলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী : ফখরুল

বিশেষ প্রতিবেদকঃ   জাতিকে আরেক দফা সংকটের দিকে ঠেলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী বলে মন্তব্য করলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সরকারের চার বছর পূর্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের পর বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের জানানো তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, দেশে এখন রাজনৈতিক সংকট চলছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে কীভাবে নির্বাচন অর্থবহ করা যায়, তা নিয়ে কিছু বলেননি। দুঃখজনকভাবে তার বক্তব্যে সংকট নিরসনের কোনো লক্ষণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তার বক্তব্যের সঙ্গে সত্যতার মিল নেই।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে ৫ শতাংশের কম ভোট পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে আগামী নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে যে সুষ্ঠু নির্বাচন দরকার, তার আয়োজনে সরকার আন্তরিক নয়। এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে জনগণ আশাহত হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, প্রকৃতপক্ষে দেশ দুর্নীতির মহাসড়কে আছে। উন্নয়নের নামে সবচেয়ে বেশি দুর্নীতি হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষের অবস্থার পরিবর্তনের কথা বলেছেন। কিন্তু বিদ্যমান সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের কথা বলায় সে সংকট রয়েই গেছে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষ অর্থবহ নির্বাচন দেখতে চায়। তার বক্তব্যে সমঝোতার ইঙ্গিত দেখা গেল না। এটা হতাশাজনক। মানুষ এই অন্যায় সহ্য করবে না। তিনি হুমকির সুরে বলেছেন যে নির্বাচন নিয়ে কোনোরকম নৈরাজ্য সহ্য হবে না।

তিনি আরো বলেন, আমরা বলতে চাই যে নৈরাজ্য বিরোধীদল সৃষ্টি করে না। নৈরাজ্য করে সরকার। বিগত সময়ে তারাই নৈরাজ্য করেছিল, যাতে নির্বাচন প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি সাহাদাত হোসেন, নির্বাহী কমিটির সদস্য অপর্ণা রায় দাশ, চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান প্রমুখ।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.